আক্রান্ত
১৮৮৯
সুস্থ
১৭৯
মৃত্যু
৫৮

শতভাগ বৃত্তিতে মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা

0

মালয়ান চীনা শিক্ষাবিদ ট্যান কাহ কী ঝিয়ামেন ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ১৯২১ সালে। মালয়েশিয়াতে এর ক্যাম্পাস স্থাপিত হয় ২০১৩ সালে। চীনের বাইরে এটিই একমাত্র চীনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। ১৫০ একর জায়গা নিয়ে স্থাপিত বিশ^বিদ্যালয়টির শিক্ষকদের শতকরা ৯০ ভাগই পিএইচডি ডিগ্রিধারী। পড়াশোনা করানো হয় ইংরেজিতে।
অলাভজনক উদ্দেশ্যে স্থাপিত বিশ্ববিদ্যালয়টির অর্জিত অর্থ ব্যয় করা হয় গবেষণা ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিয়ে উচ্চশিক্ষার ব্যাপারে। এ বৃত্তি অর্জনের সুযোগ আছে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদেরও।

বৃত্তির আওতায় এসএসসি, এইচএসসি, ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেল উত্তীর্ণ বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা তাদের অর্জিত জিপিএ-এর ভিত্তিতে বিভিন্ন হারের বৃত্তি পেতে পারবেন। এসএসসিতে জিপিএ ৫ প্রাপ্তরা পাবেন ৫০%, ৪.৫ প্রাপ্তরা ৩০% এবং ৪ প্রাপ্তরা ১৫% বৃত্তি। এইচএসসিতে জিপিএ ৫ প্রাপ্তরা পাবেন ৬০%, ৪.৫ প্রাপ্তরা ৩০% এবং ৪ প্রাপ্তরা ১৫% বৃত্তি। ‘ও’ লেভেলে ৭এ প্রাপ্তরা পাবেন ৭৫%, ৬এ প্রাপ্তরা ৫০% এবং ৫এ প্রাপ্তরা ২৫% বৃত্তি। ‘এ’ লেভেলে ৩এ প্রাপ্তরা পাবেন ৭৫%, ২এ প্রাপ্তরা ৫০% এবং ১এ প্রাপ্তরা ২৫% বৃত্তি। জেনারেল এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট (জিইডি) পরীক্ষায় ৮৫% নম্বর প্রাপ্তরা পাবেন ৭০%, ৮০% প্রাপ্তরা ৫০% এবং ৭৫% প্রাপ্তরা ৩০% বৃত্তি। যেসব শিক্ষার্থী ঝিয়ামেন ইউনিভার্সিটির ফাউন্ডেশন কোর্সে যোগ দিয়ে সিজিপিএ ৩.৫ কিংবা তার বেশি পাবেন তারা ব্যাচেলর ডিগ্রিতে শতভাগ বৃত্তির জন্য যোগ্য হবেন।

ঝিয়ামেন ইউনিভার্সিটিতে ফাউন্ডেশন ইন সায়েন্স ও ফাউন্ডেশন ইন আর্টস ছাড়াও ব্যাচেলর ডিগ্রি অর্জন করা যাবে ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, নিউ এনার্জি সায়েন্স, মেরিন বায়োটেকনোলজি, মেরিন এনভায়রনমেন্টাল কেমিস্ট্রি, ম্যাথমেটিক্স এন্ড এপ্লায়েড ম্যাথমেটিক্স, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি (সিএসই), সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিজিটাল মিডিয়া টেকনোলজি, একাউন্টিং, ফিন্যান্স, ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস, জার্নালিজম ও এডভার্টাইজিং ইত্যাদি বিষয়ে। পোস্টগ্র্যাজুয়েশন করা যাবে মাস্টার অভ বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশনে (এমবিএ)।

ঝিয়ামেন ইউনিভার্সিটিতে বিভিন্ন কোর্সে টিউশন ফি পড়ে প্রতি বছর ৩ হাজার থেকে ৬ হাজার মার্কিন ডলার। যেহেতু এটি একটি অলাভজনক বিশ্ববিদ্যালয় তাই মেধাবী শিক্ষার্থীরা তাদের মেধার ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ১০০ ভাগ পর্যন্ত বৃত্তি অর্জন করতে পারবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়টিতে বৃত্তি অর্জনসহ পড়াশোনার যাবতীয় বিষয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের প্রয়োজনীয় তথ্য দেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়টির কর্মকর্তা টনি ঝেং এবং উচ্চশিক্ষা বিষয়ক পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান নলেজ হাব-এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আরিফ সৈয়দ আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর নগরীর পূর্ব নাসিরাবাদে নেসা ভিলার ৩য় তলায় অবস্থিত উচ্চশিক্ষাবিষয়ক পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান একাডেমিয়া অফিসে উপস্থিত থাকবেন। আগ্রহীরা ফোন, এসএমএস অথবা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে এপয়ন্টমেন্টের জন্য ০১৯৬৯০০৯০০০, ০১৭৬৪২০৩৫৭৯ নম্বরে অথবা [email protected] ইমেইলে যোগাযোগ করতে পারেন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন