s alam cement
আক্রান্ত
১০০৮০১
সুস্থ
৭৯৬৩৫
মৃত্যু
১২৬৮

কাজ শেষ না হতেই উঠে গেল সড়কের কার্পেটিং, ৮৬ লাখ টাকার শ্রাদ্ধ

0

নির্মাণকাজ শেষ হতে না হতেই উঠে যাচ্ছে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতরী ইউনিয়নে বিলপুর সড়কের কার্পেটিং। উপজেলার চাতরী ইউনিয়নের বিলপুর বড় পুকুরপাড় এলাকা থেকে ভাঙা কালভার্ট পর্যন্ত সড়কের কার্পেটির এমন অবস্থা। সরকারি বরাদ্দে ৮৬ লাখ টাকা ব্যয়ে গত এক সপ্তাহ আগে সড়কটির কার্পেটিংয়ের কাজ শেষ করা হয়েছিল।

স্থানীয় ব্যক্তিদের অভিযোগ সড়কটিতে নিম্নমানের খোয়া ও বিটুমিনসহ অন্যান্য উপকরণ ব্যবহার করায় দ্রুত কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে। তবে ঠিকাদার স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুর রহিম কাজে কোনো অনিয়ম হয়নি বলে জানিয়ে বলেন, স্থানীয়রা কোদাল দিয়ে কার্পেটিং তুলে ফেলেছে।

সোমবার (৪ জুলাই) বিকালে আনোয়ারা সদর ইউনিয়নের বিলপুর সড়কের বড় পুকুরপাড় এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, স্থানীয়রা হাত দিয়ে সড়কের কার্পেটিং তুলে প্রতিবাদ জানাচ্ছে। আগের ওঠে যাওয়া কিছু অংশে নতুন করে বিটুমিন দিয়ে সংস্কার করা হয়েছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সেকান্দর (৫৫) অভিযোগ করে বলেন, সড়কটিতে নিম্নমানের খোয়া, বিটুমিনসহ অন্যান্য উপকরণ ব্যবহার করায় দ্রুত কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে। কার্পেটিং দেওয়ার আগে সড়কে থাকা ময়লাগুলো পরিস্কার না করায় সড়কের কার্পেটিং করার এক সপ্তাহ না যেতেই উঠে যাচ্ছে। কাজ করার সময় ঠিকাদারকে কাজের মানের কথা বললেও উনারা কারো কথা কানেও নেয়নি।

কাজ শেষ না হতেই উঠে গেল সড়কের কার্পেটিং, ৮৬ লাখ টাকার শ্রাদ্ধ 1

তিনি আরও জানান, সড়কটির পুরোনো ইট তুলে সেই ইট পরিস্কার না করে খোয়া তৈরি করে সড়কটিতে ব্যবহার করেছে ঠিকাদার।

Din Mohammed Convention Hall

স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুস ছালাম জানান, ঠিকাদার দায়সারাভাবে বিটুমিনের প্রলেপ না দিয়ে তড়িঘড়ি করে কার্পেটিং কাজ শেষ করায় সড়কটি টেকসই হয়নি। যার ফলে যানবাহন চলাচলের আগে মানুষের পায়ের সামান্য আঘাতেই নতুন কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে।

আনোয়ারা উপজেলা প্রকৌশলী তসলিমা জাহান জানান, উপজেলার বিলপুর সড়কে ব্যবহৃত বিটুমিন ভালমানের। তবে এই সড়ক টেকসই হওয়ার আগেই মানুষের চলাচলের কারণে কার্পেটিং উঠে গেছে।

সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm