s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

সালিশের পরদিন গৃহবধূর আত্মহত্যা, স্বামী পলাতক

0

স্বামীর সাথে নিয়মিত পারিবারিক কলহ লেগে ছিল, সেটা সমাধানে স্থানীয় ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে সালিশ বৈঠকও হলো। কিন্তু বৈঠকের পরদিনই গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করলেন গৃহবধূ। ঘটনার পর পালিয়ে যান তার স্বামী।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে ঘরের বিমের সাথে গামছা ঝুলিয়ে আত্নহত্যা করেন গৃহবধূ খুরশিদা বেগম (৩৫)। নিহত খুরশিদা বেগম চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের ডোয়ার আলী সিকদার পাড়ার জাফর আহমদের স্ত্রী। তার ২ ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে।

আত্মহত্যার পর শ্বশুর বাড়ির লোকজন দেখতে পেয়ে লোহাগাড়া থানা পুলিশকে খবর দিলে থানার এসআই পার্থসারথী হাওলাদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠান।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, এলাকার লোকজন আত্মহত্যার বিষয় পুলিশকে জানালে, ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করি। নিহতের গলায় গামছা পেঁচানো আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে স্বামী জাফর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

পদুয়া ইউপি সদস্য লেয়াকত আলী জানান, স্বামী-স্ত্রীর মাঝে প্রায়ই সময় ঝগড়া হতো। গতকাল দুপুরেও তার বাড়িতে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ নিয়ে সমাধান করে দিয়েছিলাম। কিন্তু আজ শুনি গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন।

কেএস

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm