মিরসরাইয়ে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে যুবলীগ নেতা এলিট

0

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার ইছাখালী ইউনিয়নে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত চার পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবং জুনিয়র চেম্বার বাংলাদেশের সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ এলিট।

শুক্রবার (২২ জুলাই) সকালে উপজেলার ইছাখালী ইউনিয়নের ঝুলনপুল বাজার সংলগ্ন ৬ নম্বর ওয়ার্ডের লুদ্দাখালি গ্রামের আব্দুল লতিফ মিস্ত্রি বাড়িতে আগুনে পুড়ে যাওয়া চার পরিবারকে আর্থিক অনুদান তুলে দেন এলিট।

জানা গেছে, গত রোববার (১৭ জুলাই) গভীর রাতে আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায় আব্দুল লতিফ মিস্ত্রি বাড়ির শামসুল হকের চার সন্তান মো. নুর নবী, মো. ইউসুফ, মো. মোশাররফ, ও শফিকুল ইসলামের ঘর। আগুনে ঘরের আসবাবপত্র, নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ও জমির কাগজপত্রসহ পুড়ে যায়।

পরিবারগুলোর কথা শুনে ছুটে আসেন যুবলীগ নেতা নিয়াজ মোর্শেদ এলিট।

অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়া নুর বেগমের মেয়ে শেফালী আক্তার বলেন, ‘আমরা অসহায় পরিবার, বাবার স্বল্প আয়ে কোনো রকম চলে আমাদের জীবন। কিন্তু আগুনে পুড়ে আমরা শেষ হয়ে গেছি। স্থানীয় চেয়ারম্যানের কিছুটা সহযোগিতা পেলেও আর কেউ এগিয়ে আসেনি। এমন সময় আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন এলিট ভাই। আমরা উনার কাছে কৃতজ্ঞ।’

নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বলেন, ‘দেরিতে হলেও আমি এই অসহায় পরিবারগুলোর খবর পাই। খবর পেয়ে আর বসে থাকতে পারিনি। নিঃস্ব, সম্বলহীন হয়ে যাওয়া মানুষগুলোকে এক নজর দেখতে চলে আসি আমার জন্মভূমি মিরসরাই উপজেলার ৬ নম্বর ইছাখালি ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের লুদ্দাখালি গ্রামে।’

Yakub Group

তিনি বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের একজন ক্ষুদ্রকর্মী। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অন্যতম উত্তরাধিকার, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ভাই, যিনি ইতোমধ্যে মানবিক যুবলীগের প্রবক্তা হিসেবে সারাদেশে সাড়া ফেলেছেন। উনার নির্দেশনা অনুযায়ী যুবলীগের সকল নেতাকর্মীদের আপনারা এখন থেকে এমন সব মানবিক কাজে অসহায়, সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে সারাদেশে পাবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যারা যুবলীগ করি, আমরা কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ভাইয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী বন্যা, অগ্নিকাণ্ডের মতো বিপর্যয়সহ দেশ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতিয়ার হিসেবে সর্বদা অঙ্গীকারবদ্ধ।’

এলিট বলেন ‘আগুনে পরিবারগুলোর যে ক্ষতি হয়েছে, তা আমাদের পুষিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়। আমরা সামান্য আর্থিক সাহায্য নিয়ে অসহায় পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি মাত্র।’

এই সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি ও যুবলীগ নেতা আছিফুর রহমান শাহীন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক যুবলীগ নেতা ইমতিয়াজ অভি, যুবলীগ নেতা শওকত আজীম রিংকু, নোমানসহ স্থানীয় নেতারা।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm