দক্ষিণ কাট্টলীতে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবলীগ কর্মীর মৃত্যু

ইসমাইল সমর্থকদের দিকে অভিযোগের তীর

0

চট্টগ্রামের দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডে প্রতিপক্ষের হামলায় এক যুবলীগ কর্মীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এই হামলায় নিহত যুবলীগ কর্মী আনোয়ার জাহেদ তানভীর (৩৭) স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোর্শেদ আকতার চৌধুরীর অনুসারী।

জানা গেছে, বুধবার (১৮ মার্চ) দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোর্শেদ আকতার চৌধুরীর বাসার সামনে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হন তানভীর। রাতে চসিক নির্বাচন উপলক্ষে বশির শাহ মাজার এলাকায় মোর্শেদ আকতার চৌধুরীর পক্ষে সভা শেষ করে ফেরার পর কাউন্সিলর মোর্শেদের অফিসে এই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার জন্য ওই ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অধ্যাপক ইসমাইলের সমর্থকদের দায়ী করা হচ্ছে।

কাউন্সিলর মোর্শেদ আকতার চৌধুরী চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘রাতে বশির শাহ মাজার এলাকায় সভা করে আমি মিলনের বাসায় যাই। তানভীর সহ ৪/৫ জন আমার অফিসে ছিল। সেখানে অতর্কিতভাবে ১০-১৫ জন মিলে আমার অফিসে হামলা করে তানভীরকে হত্যা করে ফেললো।’

এজন্য অধ্যাপক ইসমাইল ও তার অনুসারীদের দায়ী করছেন কাউন্সির মোর্শেদ।

তবে পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাইনুর রহমান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘মোর্শেদ আকতার চৌধুরীর অফিসে নয়, তার বাড়ির সামনের রাস্তায় এই ঘটনা ঘটেছে। নিহত তানভীর কাউন্সিলর মোর্শেদের অনুসারী। আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকদের সাথে তানভীরসহ কয়েকজনের পোস্টার লাগানো আর ছেড়া নিয়ে তর্কাতর্কি হয়। এর এক পর্যায়ে ইসমাইলের একজন সমর্থকের ছুরিকাঘাতে তানভীর নিহত হয়েছেন। লাশ মর্গে আছে।’

এ ঘটনার পর ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। খুনের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

এআরটি/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন