আক্রান্ত
১০১৮০
সুস্থ
১২১৬
মৃত্যু
১৯৫

করোনার রিপোর্ট আসার আগেই মারা গেলেন চসিকের কাউন্সিলর প্রার্থী

0
high flow nasal cannula – mobile

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৩৭ নম্বর মুনির নগর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হোসেন মুরাদ জ্বরে ভোগার কারণে তিনদিন আগে নমুনা দিয়েছিলেন করোনা পরীক্ষার জন্য। কিন্তু নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসার আগেই করোনার লক্ষণ নিয়ে মারা গেলেন আওয়ামী লীগের এই নেতা।

নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনিত কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন। এছাড়াও তিনি ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ মান্নান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, মুরাদ ভাইয়ের ভাড়া বাসার এক বাসিন্দার করোনা শনাক্ত হওয়ায় তিনি হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে তার শরীরের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছিল। কিন্তু তার রিপোর্ট আসেনি। গত দুই দিন তার মারাত্মক জ্বর ছিল। আজ বুধবার সকাল থেকে তার শ্বাসকষ্টও বেড়ে যায়। সকাল ৭.৪৫ মিনিটে মুন্সিপাড়ার নিজ বাসায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

মঙ্গলবার (১২ মে) সন্ধ্যায় আমাকে ফোন করে হতাশা ব্যক্ত করে বলেছিলেন, ‘মান্নান জ্বরও ন পরের, রিপোর্টও ন ফাইর।’

মাত্র ৫০ বছর বয়সে মারা যাওয়া স্থানীয় এই আওয়ামী লীগ নেতা মৃত্যুকালে এক সন্তান সহ বহু শুভাকাঙ্খি ও গুণগ্রাহী রেখে যান।

জানা গেছে, জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের টিম যাচ্ছে হোসেন মুরাদের লাশ দাফনের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে।

এফএম/এসএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন

পিপিই-মাস্ক মানসম্মত কিনা সেই প্রশ্নও উঠছে

জটিল হচ্ছে লড়াই, করোনার থাবায় চট্টগ্রামের ১৯ চিকিৎসক

নারীদের তুলনায় ৫ গুণ বেশি পুরুষ আক্রান্ত

২১ থেকে ৪০— চট্টগ্রামে তরুণরাই করোনার সহজ শিকার

ksrm