হুইপ সামশুর তথ্য চেয়ে ব্যাংকে ব্যাংকে চিঠি, তালিকায় মোট ৫০

0

চট্টগ্রামের পটিয়ার সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরীসহ ৫০ জনের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংককে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এই চিঠির পর বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে বিভিন্ন ব্যাংকে হিসাবের তথ্য চেয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

চট্টগ্রামের পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী ছাড়াও যে ৫০ জনের ব্যাংক হিসেবের তথ্য চাওয়া হয়েছে, তাদের মধ্যে রয়েছেন— ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, যুবলীগ ঢাকা দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট, যুবলীগের প্রভাবশালী নেতা জি কে শামীম, গণপূর্তের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, বিসিবি পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়া, অনলাইন ক্যাসিনোর মূল হোতা সেলিম প্রধান, যুবলীগ ঢাকা দক্ষিণের যুগ্ম সম্পাদক ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর মমিনুল হক সাঈদ, কৃষক লীগের সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজ, গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক প্রমুখ।

দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন স্বাক্ষরিত একটি চিঠি বাংলাদেশ ব্যাংককে পাঠানো হয়েছে। সেখানে ক্যাসিনো কান্ডে অভিযুক্তদের লেনদেনের হিসাবের যাবতীয় তথ্য দিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। অভিযুক্তদের কয়টি ব্যাংক একাউন্ট রয়েছে, তাতে কত টাকা রয়েছে এবং কবে কার কার সাথে লেনদেন হয়েছে, এসব তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে দুদকের চিঠিতে। ক্যাসিনোকাণ্ডে চলমান শুদ্ধি অভিযানের ধারাবাহিকতায় দুদক এই ৫০ জনের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়ে চিঠি দিল বাংলাদেশ ব্যাংককে।

এর আগে চট্টগ্রামের পটিয়ার সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরীসহ ২২ জনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বুধবার (২৩ অক্টোবর) এ সংক্রান্ত চিঠি পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) বিশেষ পুলিশ সুপার (ইমিগ্রেশন) বরাবর পাঠানো হয়। বিশ্বস্ত সূত্রে দুদক জেনেছে, এরা দেশ ছেড়ে অন্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। তাই এ চিঠি পাঠান দুদকের এ সংক্রান্ত অনুসন্ধান দলের প্রধান ও সংস্থাটির পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন।

বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা পাওয়া ২২ জনের মধ্যে সংসদ সদস্য রয়েছেন দুজন। সামশুল হক চৌধুরী ছাড়া অপরজন হলেন ভোলা ৩ আসনের সাংসদ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন। দুদকের এই নিষেধাজ্ঞায় সাম্প্রতিক সময়ে গ্রেপ্তার হওয়া কয়েকজনের পাশাপাশি অনুসন্ধান চলমান থাকা ব্যক্তিদের নামও রয়েছে।

দুদকের পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে দেশে মানিলন্ডারিংসহ বিদেশে অর্থ পাচারের অভিযোগ আছে। এ বিষয়ে দুদকের অনুসন্ধানে বিষয়টির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। বিশ্বস্ত সূত্রে দুদক জেনেছে, অভিযোগসংশ্লিষ্টরা দেশ ছেড়ে অন্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। তাই তারা যাতে দেশ ছেড়ে যেতে না পারেন সে বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন