স্বামী-ছেলের পর এবার চলে গেলেন অগ্নিদগ্ধ দিল বাহারও

0

উখিয়ায় রোহিঙ্গা শিবিরে গ্যাসের চুলার আগুনে দগ্ধ দিল বাহার নামের আরও নারীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) বিকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দিল বাহার (৫১) নারীর মৃত্যু হয় বলে ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অধিনায়ক পুলিশ সুপার মো. নাইমুল হক জানান। এ নিয়ে দগ্ধ ৬ জনের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত দিল বাহার উখিয়া উপজেলার কুতুপালং ১ নম্বর ইস্ট রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৪ ব্লকের বাসিন্দা নুর আলমের স্ত্রী। এর আগে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরে মারা যান নুর আলম ও তার ১২ বছর বয়সী ছেলে আনোয়ার মোস্তফা। বুধবার রাতে মৃত্যু হয় তার আরেক ছেলে নুর মোস্তফা (৮)।

একই ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে হাফিজুল ইসলাম নামের সাত বছর বয়সী দগ্ধ আরেক শিশুর মৃত্যু হয়। সে কুতুপালং ১ নম্বর ইস্ট রোহিঙ্গা শিবিরের আলী আহমেদের ছেলে।

ঘটনায় দগ্ধ আরও একজন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এবং তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানান এপিবিএনের পুলিশ সুপার।

Yakub Group

গত ১২ মে সকালে রান্না করার সময় গ্যাসের চুলার সংযোগ পাইপ বিচ্ছিন্ন হয়ে আগুন লাগলে নুর আলম, তার স্ত্রী ও দুই সন্তান দগ্ধ হন। এ সময় আরও দুই প্রতিবেশী তাদের সাহায্য করতে গিয়ে দগ্ধ হন। স্থানীয়রা তাদের হাসপাতালে পাঠায়।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদ মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, ‘ময়নাতদন্ত শেষে দিল বাহারের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm