s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যু, বিশ্বে একদিনেই ছাড়িয়ে গেল ১৪ হাজার

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৮ লাখ ৮১ হাজার

0

করোনা মহামারির থাবায় বিশ্বজুড়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনায় প্রাণহানি। একইসাথে অব্যাহতভাবে রয়েছে করোনার ঊর্ধ্বগতির শনাক্তও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৪ হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৮ লাখ ৮১ হাজার মানুষ।

এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৪ কোটি ৪৪ লাখ ৩০ হাজার। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩০ লাখ ৭১ হাজার। ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় বেড়েছে সংক্রমণ ও প্রাণহানির সংখ্যা।

এছাড়া, একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ৮০ হাজার ৯৭৭ জন। এতে ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ কোটি ৪৪ লাখ ৩০ হাজার ৪৭৭ জনে।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ২৬ লাখ ২ হাজার ৫১ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ৫ লাখ ৮৩ হাজার ৩৩০ জন মারা গেছেন। লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী এক কোটি ৪১ লাখ ২২ হাজার ৭৯৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৮১ হাজার ৬৮৭ জনের।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত এক কোটি ৫৯ লাখ ২৪ হাজার ৮০৬ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৮৪ হাজার ৬৭২ জন।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৩ লাখ ৭৪ হাজার ২৮৮ জন, রাশিয়ায় ৪৭ লাখ ২৭ হাজার ১২৫ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৩ লাখ ৯৫ হাজার ৭০৩ জন, ইতালি ৩৯ লাখ ৪ হাজার ৮৯৯ জন, তুরস্কে ৪৪ লাখ ৪৬ হাজার ৫৯১ জন, স্পেনে ৩৪ লাখ ৪৬ হাজার ৭২ জন, জার্মানি ৩২ লাখ ৮ হাজার ৬৭২ জন এবং মেক্সিকোতে ২৩ লাখ ১৫ হাজার ৮১১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ এক হাজার ৮৮১ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ৬ হাজার ৭০৬ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ৩২৭ জন, ইতালিতে এক লাখ ১৭ হাজার ৭৯৭ জন, তুরস্কে ৩৬ হাজার ৯৭৫ জন, স্পেনে ৭৭ হাজার ৩৬৪ জন, জার্মানিতে ৮১ হাজার ৩৮২ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ১৩ হাজার ৫৯৭ জন মারা গেছেন।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে ৭ লাখ ২৭ হাজার ৭৮০ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১০ হাজার ৫৮৮ জনের। সেরে উঠেছেন ৬ লাখ ২৮ হাজার ১১১ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি। বিশ্ব এখন করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করছে।

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm