আক্রান্ত
২০৮৬০
সুস্থ
১৬২৯১
মৃত্যু
৩০১

চান্দগাঁওয়ের সিগারেট কারখানায় অপকর্ম একের পর এক

এক অভিযানেই ধরা ১৭ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি

0

চট্টগ্রামের চান্দগাঁও শিল্পাঞ্চলের সিগারেট প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল টোব্যাকো ইন্ডাস্ট্রিজ একের পর এক প্রতারণা ও বেআইনি কাজ করেও থামছে না। মামলা-জরিমানা কোনো কিছুই তাদের অপকর্মকে থামাতে পারছে না।

পরিবেশ ছাড়পত্র না থাকায় এক বছর আগেও এই শিল্পপ্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয় বেশ কিছুদিন। সিগারেটের ট্যাক্স ফাঁকি দেওয়ায় চট্টগ্রামের কাস্টমস কমিশনারেট কয়েক দফায় বিপুল অংকের টাকা জরিমানা করে ইন্টারন্যাশনাল টোব্যাকোকে। সবশেষ গত মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের ভ্যাট গোয়েন্দারা এই প্রতিষ্ঠানে অতর্কিত হানা দিয়ে ১৭ লাখ টাকা মূল্যের অবৈধ ব্যান্ডরোল জব্দ করেছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের চান্দগাঁও শিল্পাঞ্চলে সিগারেট প্রস্তুতকারী ওই কারখানা চত্বরে এক ঝটিকা পরিদর্শনে গিয়ে গোয়েন্দারা কারখানার মেঝেতে ৬০ কার্টন সিগারেটের সঙ্গে ব্যান্ডরোল বাঁধা অবস্থায় দেখতে পান। ভ্যাট গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পরিচালক তানভীর আহমেদ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন।

অবৈধ ব্যান্ডরোল ব্যবহারের অভিযোগে চট্টগ্রামের ইন্টারন্যাশনাল টোব্যাকো ইন্ডাস্ট্রিজ নামের এই সিগারেট প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে ভ্যাট গোয়েন্দারা।

ভ্যাট আইন অনুযায়ী, প্রতিটি সিগারেটের প্যাকেটে সিকিউরিটি প্রিন্টিংয়ের মাধ্যমে সরবরাহ করা একটি নতুন ব্যান্ডরোল ব্যবহার করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু ভ্যাট গোয়েন্দারা দেখতে পায়, সিগারেট প্রস্তুতকারী ওই কারখানায় পুরানো ও ব্যবহৃত ব্যান্ডরোল ব্যবহার করে ভ্যাট এড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

ভ্যাট গোয়েন্দারা পরে ১৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা মূল্যের ব্যান্ডরোল অবৈধভাবে ব্যবহারের জন্য সাহারা ও এক্সপ্রেস ব্র্যান্ডের ২৪ লাখ টাকা মূল্যের ৬ লাখ সিগারেট বাজেয়াপ্ত করেছে।

গত বছরের ৪ সেপ্টেম্বর পরিবেশের ছাড়পত্র না থাকায় ইন্টারন্যাশনাল টোব্যাকো ইন্ডাস্ট্রিজের কারখানার কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয় পরিবেশ অধিদফতর। একই অভিযোগে ওই দিন শুনানিতে প্রতিষ্ঠানটিকে ৭০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এর আগেও সিগারেটের ট্যাক্স ফাঁকি দেওয়ায় এই প্রতিষ্ঠানকে কয়েক দফায় বিপুল অংকের টাকা জরিমানা করেন কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট চট্টগ্রামের কমিশনার। ওই সময় এনবিআরের পক্ষ থেকে জানানো হয় ইন্টারন্যাশনাল টোব্যাকো নকল ট্যাক্স ও স্ট্যাম্প ব্যবহার করে সাহারা, জাভা, গোল্ডেন হিল, এক্সপ্রেস, রমনাব্ল্যাক ও উইলসন ব্র্যান্ডের সিগারেট উৎপাদন করছে।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm