s alam cement
আক্রান্ত
৫৬৮৮০
সুস্থ
৪৮৩৭৪
মৃত্যু
৬৬৬

চবির ভর্তিযুদ্ধে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩৭ জন

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৩৭ জন শিক্ষার্থী। চারটি ইউনিট ও দুইটি উপ-ইউনিটে ৪ হাজার ৯২৬টি আসনে ভর্তির জন্য চূড়ান্তভাবে মোট আবেদন জমা পড়েছে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৩ টি। তবে ভর্তি পরীক্ষার জন্য অনলাইনে আবেদন করেও ১১ হাজার ৯২৯ জন ভর্তিচ্ছু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টাকা জমা না দেয়ায় পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সুযোগ পাচ্ছে না।

বুধবার (১২) মে বেলা সাড়ে ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেল সূত্রে এই তথ্য জানা যায়।

আইসিটি সেল সূত্রে আরও জানা যায়, ‘এ’ ইউনিটে ১ হাজার ২১২টি আসনের বিপরীতে আবদেন করেছেন ৬৮ হাজার ১০৬ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৫৬ জন।

‘বি’ ইউনিটে ১ হাজার ২২১টি আসনের বিপরীতে আবদেন করেছেন ৪২ হাজার ৬৬৮ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তির জন্য লড়বে ৩৫ জন।

‘সি’ ইউনিটে ৪৪১টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ১৩ হাজার ৯১৮ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনে ভর্তির জন্য লড়বে ৩২ জন।

‘ডি’ ইউনিটে ১ হাজার ১৬০টি আসনের বিপরীতে ৫৪ হাজার ২৪৯ জন আবেদন করেছেন। সম্মিলিত এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ৪৭ জন লড়বে।

Din Mohammed Convention Hall

দুইটি উপ-ইউনিটের মধ্যে ‘বি১’ ইউনিটে ১২৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ২ হাজার ২০ জন। এই উপ ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তির জন্য লড়বে
১৬ জন। আর ‘ডি১’ উপ ইউনিটে ৩০টি আসনের বিপরীতে ২ হাজার ৯০২ জন
প্রার্থী আবেদন করেছেন। এই উপ ইউনিটে আসন প্রতি লড়বে ৯৭ জন।

বিষয়টি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৩ জন শিক্ষার্থী টাকা জমা দিয়েছে। ১৮ মে পর্যন্ত ভর্তিইচ্ছু শিক্ষার্থীরা চারটি বিষয় সংশোধন করতে পারবেন। তা হলো— কোটা সংশোধন, মোবাইল নম্বর পরিবর্তন, ইংরেজি মাধ্যম থেকে বাংলা মাধ্যম এবং আবেদনকারীর ছবি। এসব বিষয়গুলো অনলাইনে সংশোধন করতে পারবেন।

আবেদনপত্র সংশোধন
ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা ১৮ মে পর্যন্ত আবেদনপত্র সংশোধন করতে পারবে। আগে ৯ মে পর্যন্ত আবেদনপত্র সংশোধনের তারিখ নির্ধারণ করা ছিল। তবে এক্ষেত্রে আলাদা ৩০০ টাকা জমা দিতে হবে।

প্রবেশপত্র সংগ্রহ
ভর্তিচ্ছুরা ৭ জুন থেকে ভর্তি পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে পর্যন্ত প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবে। আগে প্রবেশপত্র সংগ্রহ ১ জুন থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে ভর্তির বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে। ওয়েবসাইট লিংক: (https://admission.cu.ac.bd/)।

পরীক্ষা পদ্ধতি
ভর্তি পরীক্ষা বরাবরের মতোই ১২০ নম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১০০ নম্বর লিখিত পরীক্ষা (বহুনির্বাচনি) ও বাকি ২০ নম্বর এসএসসি ও এইচএসসি জিপিএ থেকে যুক্ত হবে। বহুনির্বাচনী পদ্ধতির এই ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর হবে ৪০।

ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি
করোনা পরিস্থিতির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্যাম্পাসেই ভর্তি পরীক্ষার আট দিনব্যাপী সময়সূচি নির্ধারণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বিবেচনায় তিনটি ইউনিটের পরীক্ষার জন্য দুদিন করে সময় রাখা হয়েছে। একটি ইউনিট ও দুটি উপ-ইউনিটের জন্য রাখা হয়েছে আরও দুদিন।

সময়সূচি অনুযায়ী ২২ ও ২৩ জুন ‘বি’ ইউনিট, ২৪ ও ২৫ জুন ‘ডি’ ইউনিট, ২৮ ও ২৯ জুন ‘এ’ ইউনিট ও ৩০ জুন ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ১ জুলাই উপ-ইউনিট ‘বি-১’ ও ‘ডি-১’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এমআইটি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm