আনোয়ারা সরকার হাট পশু বাজার: বেড়েছে ছাগলের কদর

0

এবারের কোরবানি ঈদে গরু-মহিষের পাশাপাশি ছাগলেরও ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। ছাগল কোরবানি দিয়ে থাকেন অনেকে। এছাড়া কোরবানি উপলক্ষে অনেকে ছেলে-মেয়ের শশুরবাড়িতে বা আত্মীয়-স্বজনদের উপহার দিতে কিনছে ছাগল। তাই আগেভাগেই জমে উঠেছে দক্ষিণ চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী আনোয়ারা সরকারহাট ছাগলের বাজার।

শুক্রবার (২ আগস্ট) কোরবানির প্রথম হাটের গরু-মহিষের পাশাপাশি কেনাবেচা হচ্ছে ছাগলও।

শুক্রবার বিকালে বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গরু ও ছাগলের পাশাপাশি বাজারে এসেছে প্রচুর পরিমাণে মহিষ। বেচাকেনাও ভালো। তবে এটি আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এখানে কোরবানি বাজার ছাড়াও সারাবছর ছাগল বিক্রি হয়। খুচরা বিক্রেতারা সরকার হাট থেকে ছাগল কিনে বিভিন্ন হাটবাজারে বিক্রি করেন। এ হাটের পাইকারি ব্যবসায়ীরা ইতিমধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ছাগল কিনে মজুদ করে রেখেছেন। বাজারও বেশ জমে উঠেছে।

জানা গেছে, সারা বছর সরগরম থাকে সরকারহাট পশুর বাজার। সপ্তাহের সোম ও শুক্রবার বাজারের নির্ধারিত দিন ছাড়াও এখন পুরো সপ্তাহ জুড়েই চলছে পশু বেচাকেনা। কোরবানির ঈদের দশদিন আগ থেকেই শুরু হয়েছে এ বেচাকেনা।

ছাগল বিক্রেতা মোহাম্মদ সোহেল জানায়, বাজারের পাশ্ববর্তী এলাকাগুলোতে কোরবানি উপলক্ষে অনেক ছাগল বিভিন্ন স্থান থেকে সংগ্রহ করে রাখা হয়েছে। একেকজন পাইকারি ব্যবসায়ী দেড় থেকে দুইশ ছাগল এনে রেখেছেন। বিশেষ করে বাঁশখালী, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া, চকরিয়া ও পেকুয়াসহ ছাগল পালনকারীরাও সরকার হাট এসে ছাগল বিক্রি করেন।

বাঁশখালী থেকে ছাগল কিনতে আসা মফিজুর রহমান বলেন, আমি উপহার দেওয়ার জন্য ১৫ হাজার ৭ শ টাকা দিয়ে একটি ছাগল নিলাম। অন্যান্য বাজারের চেয়ে এ হাটে ছাগলের দাম কিছুটা কম।

সরকারহাট বাজারের ইজারাদার জাহাঙ্গীর আলম জানায়, ভারত থেকে গরু না এলেও কোরবানি পশুর এবার সমস্যা হবে না। এ অঞ্চলের খামারিদের কাছে যে পরিমাণ গরু আছে, তাতেই চাহিদা মিটবে। তবে গরুর দাম একটু চড়া।

এদিকে, ক্রেতা-বিক্রেতার ভিড়ে কেউ যেন প্রতারিত না হয় সে জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। পাশাপাশি জাল টাকা শনাক্তকরণ মেশিনও রাখা হয়েছে এ বাজারে। আমরা ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছি। আশা করি, বিক্রেতারা স্বচ্ছন্দে ব্যবসা করতে পারবেন।

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, পুলিশের একটা দল সার্বক্ষণিক বাজারের কাছেই থাকছে। আশা করি, কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটবে না।

এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন