আখেরি মোনাজাতে শেষ শফিউল বশর মাইজভাণ্ডারীর খোশরোজ শরীফ

0

লাখো ভক্তের উপস্থিতিতে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে আধ্যাত্মিক সাধক হযরত গাউছুল আজম শাহ সুফি সৈয়দ গোলামুর রহমান মাইজভাণ্ডারীর ছেলে সৈয়দ শফিউল বশর মাইজভাণ্ডারীর ১০১তম খোশরোজ শরীফ শেষ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ফটিকছড়ির মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফে গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের উদ্যোগে মহাসমারোহে অনুষ্ঠিত হয়েছে দিবসটি। মিলাদ মাহফিল ও জিকির শেষে বিশ্বের সকল উম্মার সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন মাওলানা সৈয়দ মুজিবুল বশর আল-হাছানী।

বিকেলে দরবার শরীফের শাহী মাঠে সৈয়দ শফিউল বশর আল হাছানীর উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলে সাজ্জাদনশীন মাওলানা সৈয়দ মজিবুল বশর আল হাছানী বলেন, ‘আল্লাহ ও তাঁর প্রিয় রাসুলের প্রতি নৈকট্যলাভের জন্য কোরআন হাদিসের প্রেক্ষিতে তরিকাকে ধারণ করতে হবে। যুব সমাজকে বিপথগামী থেকে উদ্ধার করতে, সৎ ও সঠিক পথে পরিচালনা করতে মাইজভাণ্ডারী দর্শনের কোনো বিকল্প নেই।

এ খোজরোজ শরীফ উপলক্ষে দরবার এলাকাজুড়ে বসেছে গ্রামীণ মেলা। ওরশে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা প্রশাসন, থানা ও নাজিরহাট হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক আইনশৃংখলা রক্ষায় নিয়োজিত রয়েছে। মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফের দক্ষিণে বিলে বিশাল এলাকাজুড়ে কয়েকহাজার গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া দরবার শরীফ থেকে নাজিরহাট পর্যন্ত রাস্তার পাশে পার্কিয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এএস/এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন