s alam cement
আক্রান্ত
৪৫৭০৮
সুস্থ
৩৪৯৫২
মৃত্যু
৪৩৭

টিন ও মাটির নিচে লুকানো ছিল সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা

0

কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ ইয়াবাসহ ৩ মাদক কারবারীকে আটক করেছে র‌্যাব। চট্টগ্রাম র‌্যাব-৭ এর একটি টিম শনিবার (৬ মার্চ) ভোর রাতে টেকনাফের হারিয়াখালী এলাকায় দুইটি বসতবাড়িতে এ অভিযান চালায়। অভিযানে র‌্যাব সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা উদ্ধার করে।

অপরদিকে একই সময় র‌্যাব-১৫ পৃথক অভিযানে টেকনাফের বড়ইতলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৯ হাজার ৫শ পিস ইয়াবা জব্দ করে। এসময় দুইজনকে আটক করা হয়। আটককৃতদের থানায় সোপর্দ করে মাদক আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।

র‌্যাব-৭ এর উপ-পরিচালক মেজর মুশফিকুর রহমান জানান, ‘সাগর পথে মাদক পাচারের মাষ্টার মাইন্ড টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের হারিয়াখালী এলাকার মৃত বদিউর রহমানের ছেলে গুরা মিয়াকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আটক করে র‌্যাব। পরে তার দেয়া তথ্য মতে ভোর রাতে অভিযান চালানো হয় একই এলাকার হাফেজ উল্লাহ ও ইসমাঈলের বাড়িতে।’

তিনি বলেন, ‘এসময় মাটি খুঁড়ে ও ঘরের টিনের নীচে কৌশলে লুকিয়ে রাখা ৩ লাখ ৫০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ধৃত ব্যক্তিসহ অপর দুইজনকে পলাতক আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে সাগর পথে মিয়ানমার থেকে ইয়াবা এনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করে আসছিল বলে স্বীকার করেছে।

এদিকে কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, ‘শনিবার ভোররাতে টেকনাফের বরইতলী এলাকায় একটা চক্র মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য সড়কে অবস্থান করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ৪৯ হাজার ৫শ পিস ইয়াবাসহ টেকনাফ সদর ইউনিয়নের উত্তর লম্বরী এলাকার মৃত মাহবুবুর রহমানের ছেলে শামসুল আলম ও ফজল আহমদের ছেলে জামাল হোসেনকে আটক করা হয়।’

Din Mohammed Convention Hall

কেএস

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm