জিয়াউদ্দিন বাবলু জাপার প্রার্থী বাদলের আসনে, চান মহাজোটের সমর্থন

0

চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় পার্টি। এই নির্বাচনে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুকে জাতীয় পার্টির প্রাথী হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে। যিনি দশম সংসদ নির্বাচনে কোতোয়ালী আসন থেকে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হলেও একাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থিতা ছাড়তে হয় আওয়ামী লীগের কাছে।

ঢাকার পার্টি অফিসে রোববার (১ ডিসেস্বর) বিকেলে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্যদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে জাপার সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ কাদেরসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ আসনের প্রয়াত সাংসদ মইন উদ্দীন খান বাদল গত ৭ নভেম্বর মারা যাওয়ার কারণে উপ নির্বাচন হচ্ছে। আগামী ১৩ জানুয়ারি ইভিএমে ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। গত তিন সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের শরিক মইন উদ্দীন খান বাদল নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে বিজয়ী হন।

এ প্রসঙ্গে জিয়াউদ্দীন আহমেদ বাবলু চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমি গত নির্বাচনে রানিং আসন কোতোয়ালী ছেড়ে দিয়েছি মহাজোট নেত্রীর সিদ্ধান্তে। এবার চট্টগ্রাম ৮ আসনের উপ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে আমাকে প্রার্থী মনোনীত করা হয়েছে। আমি নির্বাচন করব।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা এখনও যেহেতু জোটে আছি। জোটগত নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। আশা করি মহাজোটগতভাবে এ আসন জাপাকে ছেড়ে দেওয়া হবে। সেটা জোটের বৈঠকেই সিদ্ধান্ত হবে।’

এদিকে উপনির্বাচনে মনোয়ন দৌঁড়ে অনেকটাই অপ্রতিরোধ্য দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ। তিনি এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে এবার নৌকার টিকিট পেতে যাচ্ছেন বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। তবে মহাজোটগতভাবে প্রার্থীর প্রশ্ন আসলে তখন কপাল পুড়তে পারে মোছলেম উদ্দীনের। তখন নৌকার সমর্থন যেতে পারে লাঙ্গলের দিকে। যেমনটি সম্প্রতি রংপুরে প্রয়াত এইচ এম এরশাদের আসনে উপ নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও শেষ সময়ে জাপার প্রার্থী এরশাদপুত্র সাদকে সমর্থন দিয়েছিল আওয়ামী লীগ।

এছাড়াও এই উপনির্বাচনে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক এম রেজাউল করিম চৌধুরী, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, প্রয়াত এমপি মইন উদ্দিন খান বাদলের স্ত্রী সেলিনা খান বাদলসহ অনেকেই আলোচনায় আছেন।

মইন উদ্দীন খান বাদল গত ৭ নভেম্বর ভারতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করার আগ পর্যন্ত ২০০৮ সাল থেকে নবম, দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদে ২৮৫/চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে আমৃত্যু দায়িত্ব পালন করেন।

এডি/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন