s alam cement
আক্রান্ত
৩২০৭৭
সুস্থ
৩০০৫৯
মৃত্যু
৩৬৬

পর্যটকের ছদ্মবেশ, ট্রাভেল ব্যাগে লুকানো ২২৫৯০ পিস ইয়াবা

চোরাপথ ব্যবহার করছে পাচারকারীরা

0

ইয়াবার বড় চালান নিয়ে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামের পথ ধরে বাঁশখালীতে আসতেই ধরা র‍্যাবের হাতে। দুটি মোটরসাইকেলের আরোহীর কাছে থাকা ট্রাভেল ব্যাগ থেকে এ সময় পাওয়া গেল ২২ হাজার ৫৯০ পিস ইয়াবা।

দীর্ঘদিন ধরেই কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামে আসার সোজা পথ না ধরে পেকুয়া-বাঁশখালীর ভেতরের পথ ব্যবহার করে চক্রটি চট্টগ্রামে ইয়াবা আনার কাজটি করে যাচ্ছিল— এমন তথ্য জানিয়েছে র‍্যাব।

শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) ১০টায় র‍্যাবের একটি দল চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার রামদাস মুন্সির হাটের ব্রিজে একটি বিশেষ চেকপোস্ট বসিয়ে দুই মোটর সাইকেলসহ চারজনকে আটক করে।

র‍্যাব জানায়, র‍্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা দুটি মোটরসাইকেলের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‍্যাব সদস্যরা মোটরসাইকেল দুটি থামানোর সংকেত দেয়। কিন্তু গাড়ি না থামিয়ে দ্রুত পালানোর চেষ্টা করলে র‍্যাব সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে।

Din Mohammed Convention Hall

পরে মোট চারজনকে আটক করা হয়। এরা হলেন চকরিয়ার বেতুয়া গ্রামের আবু তৈয়বের ছেলে নুরুল মান্নান (৫৬), ইদমনি ঘোনা গ্রামের মোজাফ্ফর আহাম্মদের ছেলে আব্দুল আজিজ (৪২) ও একই গ্রামের রুহুল কাদেরের ছেলে মিজানুর রহমান পারভেজ (৩০) এবং মহেশখালীর উত্তর নলবিলা গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে সফিকুল ইসলাম (৩৬)।

পরবর্তীতে তাদের কাছে থাকা ট্রাভেল ব্যাগের ভেতর সুকৌশলে লুকানো অবস্থায় ২২ হাজার ৫৯০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। সেই সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেল (ঢাকা মেট্রো-হ- ৩৫-৮৩২৪ এবং ঢাকা মেট্রো-হ- ৪৭-০৪৪৭) দুটিও জব্দ করা হয়।

র‍্যাব সেভেনের সহকারী পরিচালক নুরুল আবছার জানান, চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে পরবর্তীতে বিভিন্ন কৌশলে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে আসছিল।

এএস/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm