আক্রান্ত
৩৫৩৭
সুস্থ
২৪৮
মৃত্যু
৮৫

‘উদ্দেশ্যের’ ফুল নিলেন না নওফেল

1

দলীয় নেতাকর্মীদের ‘বিশেষ উদ্দেশ্যে’ দিতে আসা ফুল গ্রহণ করলেন না শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

শুক্রবার (৬ মার্চ) বিকেলে চশমাহিলস্থ বাসভবনে এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, মন্ত্রীর বাসভবনে দুপুরের পর থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান অধ্যাপক প্রদীপ চক্রবর্ত্তীসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি মতবিনিময় করেন। তাঁদের সাথে বৈঠক শেষে মন্ত্রী বের হওয়ার সময় বিভিন্ন উপদলে বিভক্ত হয়ে নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে ছবি তুলতে চান।

প্রত্যক্ষদর্শী আকবর আলী চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে ব্যারিস্টার নওফেল বাসভবন থেকে বের হয়ে গাড়িতে উঠতে যাওয়ার সময় কমপক্ষে ২০টা গ্রুপ মন্ত্রী মহোদয়কে ফুল দিতে আসেন। কিন্তু তিনি কারও ফুল গ্রহণ না করে সবাইকে নির্বাচনী অফিসে গিয়ে দলীয় কাজে অংশ নিতে নির্দেশ দিয়ে বেরিয়ে যান।

প্রসঙ্গত, অকারণে ফুল দিয়ে সেল্ফী তুলে অনেক বিতর্কিত ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করে। তাদের কারণে সরকারের অনেক মন্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে। তাই শিক্ষা উপমন্ত্রীও সতর্কতার সাথে অপরিচিতদের ফুল গ্রহণ করেন নি। তারা যদি দলের প্রতি অনুগত হয়, দলীয় কর্মসূচিতেই অংশগ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

তবে এই অনাকাঙ্খিত ভিড়ে অনেকেই প্রয়োজনীয় কাজ সম্পন্ন করতে পারেননি। তেমনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষিকা অফিসিয়াল কাজে রাউজান থেকে এসেছেন মন্ত্রীর সাথে দেখা করতে। মন্ত্রী চট্টগ্রামের সন্তান হিসেবে তিনি ঢাকা যাওয়ার ঝামেলা থেকে বাঁচতে চেয়েছেন। কিন্তু এই ভিড়ে তা আর হয়নি।

তিনি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, এমন ভিড়ে আমি মেয়ে মানুষ মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে দেখা করতে পারলাম না। তিনি যদি জানতেন আমি কী কাজে এসেছি তাহলে ডেকেই কথা বলতেন বলে আমার বিশ্বাস। কারণ নওফেল সাহেব খুবই বিনয়ী ও অমায়িক মানুষ। শেষ পর্যন্ত হয়তো ঢাকাই যেতে হবে।

প্রসঙ্গত, ২৬ ফেব্রুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার নওফেল। সেখানে প্রবীন রাজনীতিবিদ থাকায় তাঁকে প্রধান অতিথির বিশেষ চেয়ারে বসিয়ে তিনি পাশের চেয়ারে বসেন। এ নিয়ে সারা দেশে দলমত নির্বিশেষে সবার কাছে প্রশংসিত হন নওফেল।

এফএম/এসএ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat
1 মন্তব্য
  1. এ আর মানিক বলেছেন

    অবিসংবাদিত নেতা ছিলেন চট্টলবীর এ বি এম মহিউদ্দিন চাচা।
    শের কা ব্যাটা শেরই হোতাহে

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm