মুজিববর্ষ: রাঙামাটিতে ফ্রি বাস সুবিধা পেল ৫ হাজার যাত্রী

0

বেলা ১১টা। রাঙামাটি শহরের ব্যস্ততম এলাকা রিজার্ভবাজার। টিকেট কাউন্টারের সামনে যাত্রীদের ভিড়। প্রতিদিনের মতো কোন হইচই নেই। বরং হাসিমুখে মোটর শ্রমিকেরাই যাত্রীদের সহায়তা করছেন। লাইনে দাঁড়িয়ে যাত্রীরাও দূরপাল্লার বাসের টিকেট সংগ্রহ করছেন। কিন্তু টিকেটের জন্য কোনো টাকা দিতে হচ্ছে না তাদের। বাইরে ব্যানার ঝুলছে, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশর্তবার্ষিকী উপলক্ষে ফ্রি বাস সার্ভিস’।

কিছুটা বিস্ময়ে পড়া যাত্রীদের চোখেমুখে তাই খুশির ঝিলিক। আর খুশির এ উপলক্ষ তৈরি করেছে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মোটর মালিক সমিতির নেতারা। এতে অন্তত ৫ হাজার যাত্রী বিশেষ এই ‘বিনা ভাড়ায়’ সেবার সুযোগ পান।

মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) সকাল থেকে দিনব্যাপী রাঙামাটি থেকে ৬টি রুটে ৮৪টি বাস বিনা ভাড়ায় যাত্রী সেবায় নিয়োজিত রাখা হয়। এরমধ্যে রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কে ৩১টি ‘পাহাড়িকা’, ৩০টি ‘দ্রুতযান’, রাঙামাটি থেকে খাগড়াছড়ি সড়কে ১২টি, রাজস্থলী সড়কে ৭টি, বান্দরবান সড়কে ২টি ও নানিয়ারচর সড়কে ২টি বাস দেওয়া হয়েছে। একইভাবে বিপরীত দিক থেকেও বিনা ভাড়ায় যাত্রীসেবা দেওয়া হয়।

সকাল ১১টায় রাঙামাটির সংসদ সদস্য ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এ বিশেষ বাস সার্ভিস উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুছা মাতব্বর, রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মোটর মালিক সমিতির রাঙামাটির সভাপতি শহীদুজ্জামান রোমানসহ সংগঠনটির নেতারা।

চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মোটর মালিক সমিতির রাঙামাটির সভাপতি শহীদুজ্জামান রোমান বলেন, ‘জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই জন্মশর্তবার্ষিকীতে ফ্রি বাস সার্ভিস দেওয়া হয়েছে। এতে অন্তত ৫ হাজার যাত্রী বিশেষ এই বিনা ভাড়ায় সেবার সুযোগ পাচ্ছেন’।

দিনব্যাপী বিনা ভাড়ায় বাস সার্ভিস পেয়ে খুশি যাত্রীরাও। চট্টগ্রামের যাত্রি শাহজাহান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মশর্তবার্ষিকীতে ফ্রি বাস সার্ভিস দেওয়ার বিষয়টি সত্যিই দারুণ’।

পার্বত্য চট্টগ্রামের সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ফ্রি বাস সার্ভিস দেওয়া একটা চমৎকার উদাহরণ হয়ে থাকবে। বিশেষ করে রাজনীতির বাইরের মানুষদের মনেও শ্রদ্ধাবোধ তৈরি হবে’।

পাহাড়িকা বাস সার্ভিসের লাইনম্যান বখতেয়ার চৌধুরী বলেন, ‘আমরা রুটিন মাফিক টিকেট দিচ্ছি; তবে সেখানে ‘ফ্রি বাস সার্ভিস’ লেখা সিল মেরে দিচ্ছি। কোনো টাকা নেওয়া হচ্ছে না’।

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন