ব্যস্ত সড়কে মালামালের স্তূপ, বাকলিয়ার ২১ ব্যবসায়ী ট্রাফিকের জালে

0

সড়কের উপর মালামাল রেখে যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টির দায়ে নতুন ব্রিজ গোল চত্বর থেকে রাহাত্তারপুল পর্যন্ত এলাকার ২১ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেছে ট্রাফিক বিভাগ। সোমবার (৬ জানুয়ারি) এ চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানায় এ অভিযোগ দাখিল করা হয়।

দোকানদারেরা দোকানের সামনে সড়কের উপর মালামাল, নির্মাণ সামগ্রী রেখে দখল করে রাখে। যা যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি ও বিভিন্ন সময়ে দুর্ঘটনাও ঘটে। দোকানদারদের মালামাল সরিয়ে নিতে একাধিকবার বলা হলেও তারা কর্ণপাত করে না। অনেকে অভিযানে মালামাল সরিয়ে নেওয়ার পর তা আবার দখল করে। ট্রাফিক বিভাগ (৫ জানুয়ারি) থেকে দখলমুক্ত করতে জন্য প্রাথমিভাবে পাঁচটি সড়কে ক্লিনরোড–ফ্রি রোড কর্মসূচি চালু করে। প্রথম দিনে সড়ক থেকে মালামাল সরিয়ে দিলেও দ্বিতীয় দিনে ২১ ব্যবসা্য়ীর বিরুদ্ধে বাকলিয়া থানায় অভিযোগ দাখিল করেছে ট্রাফিক বিভাগ।

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করা হল, তারা হলেন সুখী এন্টারপ্রাইজের তিলক দে, জম জম আইস ফ্যাক্টরির মালিক অহিদুল ইসলাম, ভাঙারির দোকাদার কালাম সওদাগর ,গাউসিয়া মটরসের সাহাবুদ্দিন, ফয়েজিয়া এন্টাপ্রাইজের মো. সেলিম, আমাদের ফার্নিচারের মো. পারভেজ, ভাঙারি দোকানদার মো. রবি আলম, বিসমিল্লাহ এন্টারপ্রাইজের মো. আজাদ, মো. বোরহান উদ্দিন, মুন্না ওয়ার্কশপের মো. এমরান, এম এ থাই অ্যালুমুনিয়ামের মো. সুজন, রিকশা গ্যারেজের মালিক মো. জসিম , ভাঙারির দোকানদার মো. সেতু সওদাগর, ভাঙারির দোকানদার মো. জাকির হোসেন, মো. সাইফুল আলম, আবদুল মান্নান, আলিফ ট্রেডিংয়ের মো. জহির আহমদ, মো. খলিলুর রহমান, ন্যাশনাল ড্রাম ফ্যাক্টরির আবদুর রশিদ সওদাগর, আওসাফ অয়েল মিলের ফজুল আজিম।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) এসএম মোস্তাক হোসেন বলেন, ‘চট্টগ্রাম নগরের সড়কে যান চলাচল নির্বিঘ্ন করতে আমরা ক্লিনরোড– ফ্রি রোড কর্মসূচি চালু করেছি। দোকানদারেরা দোকানের সামনে সড়কের উপর মালামাল রেখে যানচলাচল বিঘ্ন করে। আমরা সচেতনতার পাশাপাশি সড়কের উপর থেকে মালামাল সরিয়ে দিয়েছি। আজ (সোমবার) কয়েকজন ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।’

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নেজাম উদ্দিন বলেন, ‘সড়কের উপর মালামাল রেখে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে ২১ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিএম/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন