s alam cement
আক্রান্ত
৩৫১০৮
সুস্থ
৩২২৫০
মৃত্যু
৩৭১

বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষর জাল করে আওয়ামী লীগের নামে ভুয়া বিজ্ঞাপন, ফেরদৌসী ও জেসীর বিস্ময়

0

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন নিয়ে নাটকীয়তা শেষই হচ্ছে না। এবার দলটির কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদকের স্বাক্ষরিত ‘ভুয়া বিজ্ঞাপন’ দিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে সংরক্ষিত দুজন প্রার্থীকে ‘আওয়ামী লীগ সমর্থিত’ প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার অভিযোগ তুলেছে খোদ আওয়ামী লীগই।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের স্থানীয় একটি দৈনিকে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞাপনে জিন্নাত আরা বেগম ও জোহরা বেগমকে ‘আওয়ামী লীগ সমর্থিত’ প্রার্থী হিসেবে উল্লেখ করা হয়। তবে এটিকে আওয়ামী লীগের নামে প্রকাশিত মিথ্যা বিজ্ঞাপন হিসেবে অভিহিত করে এর প্রতিবাদ জানিয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান স্বাক্ষরিত ওই প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার সাথে দৈনিক পূর্বকোণে প্রকাশিত এ ধরনের তথ্য ও বিজ্ঞাপনের কোনো সম্পর্ক নেই।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে বিপ্লব বড়ুয়া চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমার স্বাক্ষর ‘নকল করে’ স্ক্যানিংয়ের মাধ্যমে বসিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নামে ১৯ জানুয়ারি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে একটি প্রতারকচক্র। কথিত ও জালিয়াতির এই বিজ্ঞাপন দেখে আমি নিজেও বিস্মিত হয়েছি।’

আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে বিভ্রান্তির সুযোগ নেই মন্তব্য করে বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অফিসিয়াল পেইজ এবং ওয়েবসাইটে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সব ওয়ার্ডের প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।’

Din Mohammed Convention Hall

এদিকে প্রকাশিত বিজ্ঞাপনে যে দুই প্রার্থীকে আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে, সেই দুই প্রার্থীই আবার মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে তাদের জায়গায় বিদ্রোহীদের দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার অভিযোগ তুলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেন।

বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষর জাল করে আওয়ামী লীগের নামে ভুয়া বিজ্ঞাপন, ফেরদৌসী ও জেসীর বিস্ময় 1

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ২৮, ২৯ ও ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে জিন্নাত আরা বেগম লিপি এবং ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডে জহুরা বেগমকে ঘোষণা করা হয়। সেই অনুযায়ী গত ১১ মাস ধরে তারা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েছেন, দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে মাঠ গুছিয়েছেন। কিন্তু সোমবার (১৮ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের স্থানীয় দুটি পত্রিকায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন কমিটি ২০২১ প্রদত্ত বিজ্ঞাপনে এ দুটি সংরক্ষিত আসনে বিদ্রোহী দুজনকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে নাম প্রকাশ করা হয়। এতে আগে মনোনয়ন পাওয়া দুজন ক্ষুব্ধ এবং মর্মাহত হয়েছেন বলে জানান।

এদিকে আওয়ামী লীগের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, গত ৮ মার্চ চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের উপস্থিতিতে চসিক নির্বাচনের প্রধান সমন্বয়কারী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন ও নগর আওয়ামী লীগ নেতারা মিলে আগের দুজনকে বাদ দিয়ে তাদের জায়গায় নতুন দুজন প্রার্থীকে সমর্থন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটে জিন্নাত আরা লিপির নাম বাদ দিয়ে ফেরদৌসী আকবরের নাম এবং জোহরা বেগমকে বাদ দিয়ে জেসমিন পারভীন জেসীকে অন্তর্ভুক্ত করে আওয়ামী লীগের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়।

এআরটি/কেএস

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm