করোনা দুর্যোগে আলো ছড়ালেন একজন স্বপ্না ভৌমিক

0

মার্ক্স অ্যাণ্ড স্পেন্সার। বিশ্ববিখ্যাত পোশাক প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশের গার্মেন্টস শিল্পের বড় ও পুরনো ক্রেতা। সেই প্রতিষ্ঠানের বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার বর্তমানে বাংলাদেশেরই স্বপ্না ভৌমিক। সেই স্বপ্নার উদ্যোগে করোনা থেকে সুরক্ষা পেতে চিকিৎসক ও নার্সসহ অন্যান্য জরুরি সেবার সদস্যদের জন্য পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) তৈরির কাজ শুরু করেছে মার্ক্স অ্যান্ড স্পেন্সার। আর পিপিইগুলো তৈরি করা হয়ে গেলে বিতরণ করা হবে বিনামূল্যে।

স্বপ্না ভৌমিক জানিয়েছেন, দেশের হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজগুলোতে করোনাভাইরাস নিয়ে কাজ করা ডাক্তার, নার্স এবং রোগীদের জন্য পিপিই তৈরি করছেন তারা। এ কাজে তাকে সহায়তা দিচ্ছে তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন তৈরি পোশাক কারখানাগুলো। আগামী ১০-১২ দিনের মধ্যেই তৈরি হয়ে যাবে ৪ লাখ স্বাস্থ্য সরঞ্জাম বা পিপিই। এগুলো হাসপাতালগুলোতে বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে।

শনিবার (২১ মার্চ) পিপিই বানানোর জন্য সারাদিন বাজার ঘুরে কাপড় জোগাড় করেছেন। বুয়েটের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সহায়তায় হয়েছে ডিজাইন। আর ওই সন্ধ্যায় পাওয়া গেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনও।

শনিবার রাত থেকেই পিপিইগুলো বানানো হচ্ছে মার্ক্স অ্যাণ্ড স্পেন্সারের সাথে নিয়মিত কাজ করা গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিগুলোতে। ১০-১২ দিনের মধ্যেই চার লাখ তৈরি হয়ে যাবে বলে প্রত্যাশা মার্ক্স অ্যান্ড স্পেন্সারের।

নিজের মা সাধনা ভৌমিককে মাত্র ২১ দিন আগে হারিয়েছেন স্বপ্না ভৌমিক। করোনা আক্রান্ত দেশের এই অবস্থায় মা হারানোর কষ্টগুলোও তার চাপা পড়েছে মানুষের কষ্টের চিন্তায়। যা থেকে তিনি সাহসী উদ্যোগ নিয়ে শুরু করেছেন পিপিই তৈরির কাজ।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন