আক্রান্ত
১৮৮০৫
সুস্থ
১৫২১৮
মৃত্যু
২৯২

৬ মাস পর খুলল চট্টগ্রাম জাতিতাত্ত্বিক জাদুঘরের দরজা

0

টানা ৬ মাস বন্ধ থাকার পর চট্টগ্রামের জাতিতাত্ত্বিক জাদুঘরসহ দেশের ২১টি প্রত্নতাত্তিক জাদুঘর ও ৫১৮টি প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) থেকে খুলছে। মঙ্গলবারই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. হান্নান মিয়া।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশের সব প্রত্নস্থল ও প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘর গত ১৯ মার্চ থেকে পর্যটক ও দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল।

বুধবার থেকে এগুলো খুলে দেওয়া হলেও পর্যটক ও দর্শনার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। প্রবেশের সময় অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। প্রত্নজাদুঘরগুলোতে প্রবেশের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় থাকা কর্মীরা স্বাস্থ্যবিধির বিষয়টি তদারকি করবেন। এ ছাড়া তদারকি থাকবে টিকিট কাউন্টারেও।

প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. হান্নান মিয়া জানান, আমরা কিছুদিন আগে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছিলাম যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আকারে জাদুঘর এবং প্রত্নতাত্ত্বিক স্থানগুলো খুলে দেওয়া হোক। আমরা সেই অনুমতি পেয়েছি মন্ত্রণালয় থেকে।

প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের অধীনে ৫১৮টি সংরক্ষিত পুরাকীর্তি ও ২১টি প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘর রয়েছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে চট্টগ্রামের জাতিতাত্ত্বিক জাদুঘর, ঢাকার লালবাগ দুর্গ জাদুঘর, ময়মনসিংহ জাদুঘর, মানিকগঞ্জের বালিয়াটি প্রাসাদ ও জাদুঘর, বগুড়ার মহাস্থান জাদুঘর, নওগাঁর পাহাড়পুর জাদুঘর, নওগাঁর পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার, নওগাঁর পতিসরে রবীন্দ্র কাচারিবাড়ি,রংপুরের রংপুর জমিদারবাড়ি ও তাজহাট জমিদারবাড়ি, শাহজাদপুরের রবীন্দ্র কাচারিবাড়ি, রাজশাহীর বাঘা জাদুঘর, নাটোরের চলনবিল জাদুঘর, খুলনা বিভাগীয় জাদুঘর, খুলনার দক্ষিণডিহিতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শ্বশুরবাড়ি, বাগেরহাটের জাদুঘর. ষাটগম্বুজ মসজিদ, কুষ্টিয়ার শিলাইদহের রবীন্দ্র কুঠিবাড়ি, যশোরের সাগরদাড়িতে কবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি, বরিশালের চাখারে শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের স্মৃতি জাদুঘর, বরিশালের বিভাগীয় জাদুঘর, ময়নামতি জাদুঘর, নারায়ণগঞ্জের পানাম সিটি প্রত্নস্থল, বগুড়ার গোবিন্দ ভিটা প্রত্নস্থল, বগুড়ার গোকুলমেধ মন্দির, কুমিল্লার ময়নামতিতে শালবন বিহার।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm