৪৩ হাজারের চালান চট্টগ্রাম বন্দরে এসে হয়ে গেল ৩ হাজার!

0

৪৩ হাজার ৩০ কেজির একটি চালানকে মাত্র ৩ হাজার ৩ কেজি দেখিয়ে খালাস করে নেওয়ার সময় ধরা পড়লো চট্টগ্রাম বন্দরে। রোববার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় তিনটি কনটেইনারে জেপি শিটের ওই চালানটি আটক করে চট্টগ্রাম কাস্টমস। এর আগে গোয়েন্দা সংস্থার কাছ থেকে চালানটি সম্পর্কে তথ্য পায় কাস্টমস।

আটকের পর জেপি শিটের চালানবাহী তিনটি ট্রাক বন্দরের নিরাপত্তা হেফাজতে রাখা হয়েছে। ট্রাকগুলো হচ্ছে ঢাকা মেট্রো ট-২২৭৪২৮, ফেনী ট- ১১০৮০৩ ও ফেনী ট-১১০৭৮৮।

জানা গেছে, জেপি শিটের ৪৩ হাজার ৩০ কেজির চালানটি এমভি ক্যাপ মনটেরি নামে একটি জাহাজে করে জাপান থেকে আনে আমানুল্লাহ আয়রন ট্রেডার্স নামে ঢাকাভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদ বাণিজ্যিক এলাকার স্ট্যান্ডার্ড ফ্রেইট ইনকর্পোরেশন নামের একটি সিএন্ডএফ এজেন্ট চালানটি খালাসের দায়িত্বে ছিল। রোববার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ওই এজেন্ট জেপি শিটের ওই চালানটি মাত্র ৩ হাজার ৩ কেজি দেখিয়ে খালাস করতে যায়। খালাসের সময় দেওয়া বিল অফ এন্ট্রিতে প্রকৃত ওজনের চেয়ে ৪০ হাজার ২৭ কেজি কম দেখানো হয়।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জালিয়াতির এই ঘটনা জানার পর খালাসের প্রাক্কালে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ চালানটি আটক করে। এ সময় দেখা যায়, খালাসের সময় দেওয়া বিল অফ এন্ট্রির পুরোটাই ভুয়া। প্রকৃত বিল অফ এন্ট্রিতে ৪৩ হাজার ৩০ কেজির শুল্ক নির্ধারিত হয় দুই লাখ ৮৫ হাজার ২৫৫ টাকা। অন্যদিকে ভুয়া বিল অফ এন্ট্রিতে ৩ হাজার ৩ কেজির শুল্ক দেখানো হয়েছে মাত্র ৩৬ হাজার ২০৩ টাকা।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন