লোকালয়ে ঘোরাঘুরি, চট্টগ্রামে ৪ প্রবাসীর দণ্ড

0

করোনভাইরাস প্রতিরোধে সরকার নির্ধারিত ১৪ দিনের ‘হোম কোয়ারেন্টাইন’ (ঘরে পৃথকভাবে থাকা) অমান্য করে করায় বুধবার (১৮ মার্চ) বিকেলে ৫টা পর্যন্ত চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানে ৪ ব্যক্তিকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করার পাশাপাশি হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বাধ্য করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এজেডএম শরিফুল হোসেন চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে বিদেশফেরতদের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। কেউ যাতে তা অমান্য না করে তার জন্য আমরা সতর্ক আছি। বুধবার (১৮ মার্চ) বিকেল ৪টা পর্যন্ত চার উপজেলায় চারজনকে শনাক্ত করে আর্থিক জরিমানা করার পাশাপাশি হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

জানাগেছে, হাটহাজারী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে শারজাহ ফেরত একজনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা পাশাপাশি বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছেন।

একইভাবে রাউজানের নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবীর সোহাগের ভ্রাম্যমাণ আদালত ওমানফেরত একজনকে, আনোয়ারা উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের হোসেনের ভ্রাম্যমাণ আদালত একজনকে এবং পটিয়ার উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমার ভ্রাম্যমাণ আদালত একজনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানার পাশাপাশি হোম কোয়ারেন্টাইনে বাধ্য করেছেন।

প্রসঙ্গত, দেশে ক্রমাগতভাবে বাড়ছে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী। বুধবার পর্যন্ত ১৪ শনাক্ত হয়েছে এবং একজন মৃত্যুবরণ করেছেন। শনাক্তকৃত সব রোগীই হয় বিদেশফেরত, না হয় তাদের সংস্পর্শে আসা।

লোকালয়ে জনসমাগম বন্ধ করতে ইত্যোমধ্যে চট্টগ্রামের প্রায় প্রত্যেক বিনোদন কেন্দ্র ইতোমধ্যে বন্ধ করে দিয়েছে চট্টগ্রাম নগর পুলিশ।

এফএম/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন