s alam cement
আক্রান্ত
৩১৭৪৪
সুস্থ
৩০০২০
মৃত্যু
৩৬৬

মেজর সিনহা হত্যা মামলায় ওসি প্রদীপ চট্টগ্রামে গ্রেফতার, নিয়ে যাওয়া হচ্ছে কক্সবাজারে

0

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহতের ঘটনায় টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস গ্রেফতার হয়েছেন। টেকনাফ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করার পর বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) দুপুর ২ টায় চট্টগ্রামের দামপাড়া সিএমপি হেডকোয়ার্টার থেকে তাকে নিয়ে পুলিশের একটি বহর কড়া পাহারায় কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। তাকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কক্সবাজারে কোর্টে তোলা হবে বলে জানান পুলিশের উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা।

বুধবার (৫ আগস্ট) গত রাতেই চট্টগ্রাম চলে আসেন ওসি প্রদীপ এবং রাত থেকেই নগর গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে সিএমপি সদর দপ্তরে অবস্থিত পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সেখান থেকেই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সিএমপি কমিশনার চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘ওসি প্রদীপ কুমার বুধবার বিকালে অসুস্থতার কথা বলে চট্টগ্রামের দামপাড়ায় পুলিশ লাইনে সিএমপির হাসাপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন। সন্ধ্যায় জানতে পারেন তার বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় সিনহা হত্যা মামলা হয়েছে। মামলার কথা জেনে তিনি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে এই মামলায় আত্মসমর্পনের আগ্রহ প্রকাশ করেন।’

ওসি প্রদীপকে গ্রেফতার করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে সিএমপি কমিশনার জানান, ‘এখন তাকে আটক বা গ্রেফতার বলা যাবে না। এই মামলায় চট্টগ্রাম আদালতে আত্মসমর্পনের সুযোগ না থাকায় ওসি প্রদীপকে বিচারিক আদালত কক্সবাজারে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় পাঠানো হয়েছে।’

Din Mohammed Convention Hall

এর আগে কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহতের ঘটনায় টেকনাফ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বুধবার (৫ আগস্ট) রাত ১০টায়। মেজর সিনহার বোনের করা মামলাটি থানায় রাতেই নথিভুক্ত হয়েছে। আদালতের নির্দেশে মামলাটি থানায় নথিভুক্ত করা হয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে। এ ব্যাপারে টেকনাফ থানার বর্তমান ওসি এসবি দোহার সঙ্গে একাধিক যোগাযোগেও চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মেজর সিনহার বোনের দায়ের করা মামলায় বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইন্সপেক্টর লিয়াকতকে প্রধান আসামি ও টেকনাফ থানার প্রত্যাহারকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসকে দ্বিতীয় আসামি করে আরও ৯ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়। মামলার অন্য আসামিরা হলেন- বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের উপপরিদর্শক (এসআই) নন্দ দুলাল রক্ষিত, কনস্টেবল সাফানুর করিম, কামাল হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) লিটন মিয়া, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) টুটুল ও কনস্টেবল মোহাম্মদ মোস্তফা।

উল্লেখ্য, ৩১ জুলাই (শুক্রবার) রাত ১০টার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন

নতুন কমিটির চেয়ারম্যান টিপু, ভাইস চেয়ারম্যান জুয়েল

চট্টগ্রামে মেট্রোপলিটন ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা সম্পন্ন

চোখের পানিতে ভিজে বৃদ্ধ গেলেন ব্র্যাকের সেফহোমে

১৭ বছর পর খালি হাতে ফেরা রেমিটেন্সযোদ্ধাকে নিল না পরিবার

ksrm