ঝুঁকি জেনেও সিএমপির আদেশ মানেনি খুলশী থানা, সমবায়ের নির্বাচনে সহায়তা

0

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যে খুলশীতে একটি সমবায় সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে খুলশী থানা পুলিশকে ‘ম্যানেজ’ করে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (২০ মার্চ) খুলশী থানার সেগুণবাগান ৭নং মুক্তিযোদ্ধা মার্কেটের বিপরীতে দিশারী বহুমূখী সমবায় সমিতির ব্যানারে সকাল ১০টা থেকে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, খুলশী থানা এলাকার এ সমিতির সদস্য সংখ্যা প্রায় ১ হাজার। সমিতির কার‌্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচনে মোট ১৭টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে গত ১৯ মার্চ সমিতির সভাপতি প্রার্থী জাহিদ এজাজ, পরিচালক সাইফুর রহমান পাটোয়ারী, সানায়েত উল্লাহ সুজন ও সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সাইফুল ইসলাম খুলশী থানার ওসিকে যৌথভাবে একটি চিঠি দেন।

চিঠিতে নির্বাচন সংক্রান্ত কার‌্যক্রম বন্ধ থাকার বিষয়টিও উল্লেখ ছিল। এছাড়া করোনা ভাইরাসের কারণে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) পক্ষ থেকে গণজমায়েত নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু সিএমপি’র এ নির্দেশনা অমান্য করে খোদ খুলশী থানা পুলিশ এ নির্বাচন আয়োজনে সহযোগীতা করে। এমনকি নির্বাচন সংক্রান্ত কার‌্যক্রম শুরু থেকে শেষ হওয়া পর‌্যন্ত খুলশী থানা পুলিশের একটি দলকে সেখানে উপস্থিত থাকতে দেখা যায়।

এ বিষয়ে খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)প্রণব চৌধুরী বলেন, ‘এ নির্বাচন বন্ধ করার কোন চিঠি খুলশী থানা পায়নি।’ একপর্যায়ে তিনি ‘এ বিষয় নিয়ে এত মাথা ঘামাচ্ছেন কেন’ উল্লেখ করে প্রতিবেদককে উল্টো প্রশ্ন করেন।

সিএমপি’র উপ কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘এ পরিস্থিতিতে খুলশী থানা এলাকায় শুধু নয়; নগরজুড়ে গণজমায়েতের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সিএমপি’র। সেগুণবাগান এলাকায় সমবায় সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার বিষয়টি আমার জানা ছিল না। এ বিষয়ে আমি খোঁজ নিচ্ছি।’

এ বিষয়ে সভাপতি প্রার্থী সোহেল রানা বলেন, ‘করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি থাকার পরও কেন এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে তা আমার জানা নেই। সমবায় অধিদপ্তর নির্বাচন বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছিল।’

দিশারী বহুমূখী সমবায় সমিতির একাধিক সদস্য অভিযোগ করেন, ‘খুলশী থানার উচিত ছিল সিএমপি’র নির্দেশনা বাস্তবায়ন করা। তারা সেটা না করে উল্টো আইন ভেঙেছে। সরকারী সিদ্ধান্ত ও সিএমপি কমিশনারের আদেশ খুলশী থানা অমান্য করা শোভন হয়নি।’

জেএস/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন