ঈদযাত্রার প্রথম দিনে ভিড় নেই ট্রেনে

0

চট্টগ্রামে একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করেন যশোরের আবদুর রাজ্জাক। ট্রেনে ঈদ যাত্রার প্রথম দিন সোনার বাংলা এক্সপ্রেসে করে পরিবার নিয়ে যাচ্ছেন ঢাকা। সেখান থেকে বেনাপোল এক্সপ্রেসে করে যাবেন যশোর। ঈদ যাত্রায় দুই ট্রেনের টিকেটই কেটেছেন অ্যাপসের মাধ্যমে। ফিরতি টিকেট ও সংগ্রহ করেন একইভাবে।

ঈদযাত্রার প্রথম দিনে ভিড় নেই ট্রেনে 1

ঈদ যাত্রার প্রথম দিনে কোন ঝামেলা ছাড়াই আবদুর রাজ্জাক গন্তব্যে যাত্রা শুরু করেছেন। প্লাটফর্মে কোন ঝক্কি ঝামেলা নেই। বুধবার (৭ আগস্ট) বিকাল ৫ টায় চট্টগ্রাম রেল স্টেশনের ৯ নম্বর প্লাটফর্ম থেকে ছেড়ে যায় সোনার বাংলা এক্সপ্রেস। ট্রেনের প্রায় সব বগি ঘুরে দেখা যায় প্রতিটি বগিতেই অধিকাংশ আসন খালি।

বিকাল সোয়া ৫টায় চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া মেঘনা এক্সপ্রেসের যাত্রীর চাপ সোনার বাংলা এক্সপ্রেসের চেয়ে কিছুটা বেশি লক্ষ্য করা গেছে।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ বলেন, বুধবার সুবর্ণ এক্সপ্রেসে শুধুমাত্র ২৫ টিকেট অবিক্রিত ছিলো। অন্য সব ট্রেনের টিকেট বিক্রি হয়। তবে সোনার বাংলা এক্সপ্রেসে গিয়ে দেখা যায় তার উল্টো। ট্রেন ছাড়ার ৫ মিনিট আগ পর্যন্ত অন্তত ১০ বগিতে উঠে দেখা যায় প্রতিটি বগিতে ১৫ থেকে ২০ ভাগ আসন খালি।
বিকাল সোয়া চারটা থেকে সোয়া পাঁচটা পর্যন্ত চট্টগ্রাম রেল স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, চাঁদপুরগামী মেঘনা এক্সপ্রেসে ঘিরে যাত্রীদের ভিড়। সোনার বাংলা এক্সপ্রেসে যাত্রীদের চাপ ছিলো একবোরেই ঢিলেঢালা।

ওই ট্রেনের যাত্রী নুরুল আমিন জানান, সাধারণত ঈদে ঘরমুখো মানুষের যে ভিড় হয় আজ (বুধবার) সেরকম কিছু দেখা যাচ্ছে না। অনেক আসন খালি। ঈদের যাত্রার প্রথম দিন হওয়াতে হয়তো ভিড় কম।

প্রসঙ্গত গত ২৯ জুলাই শুরু হয় ঈদের অগ্রিম টিকেট বিক্রি। চলে ২ আগস্ট পর্যন্ত। বুধবার থেকে শুরু হয়েছে ঈদ যাত্রা।চলবে ১১ আগস্ট পর্যন্ত। অন্যদিকে ফিরতি যাত্রা শুরু হবে ১৪ আগস্ট থেকে, ঈদের ফিরতি যাত্রা শেষ হবে ১৮ আগস্ট।

এসসি/এসএস

Loading...
আরও পড়ুন