মিরসরাইয়ে যুবলীগ নেতার বাড়িতে ‘বোমা হামলা’, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফকে দোষারোপ

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধীদের হুইলচেয়ার বিতরণের সময় কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা নিয়াজ মোর্শেদ এলিটের বাড়িতে হামলা ও গোলাবর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে মিরসরাই থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার ১২ নম্বর খৈয়াছড়া ইউনিয়নের নয়দুয়ার এলাকার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে অভিযোগসূত্রে জানা গেছে।

নিয়াজ মোর্শেদ এলিট অভিযোগ করে বলেন, ‘চট্টগ্রাম জুনিয়র চেম্বারের উদ্যোগে মিরসরাইয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধীদের হুইলচেয়ার বিতরণ করে মিরসরাইয়ের সাংবাদিকদের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ করি। এর পর রই আন্তঃজেলা ডাকাত দলের মূল হোতা, বহু হত্যা মামলার আসামি আশরাফুল কামাল মিঠুর সেকেন্ড ইন কমান্ড মো. আলমগীর হোসেন ও কামরুল ইসলাম উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক, চাঁদাবাজি এবং ধর্ষণ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি মাসুদ করিম রানার নেতৃত্বে বেশ কয়েকটি গ্রেনেড, হাত বোমা, গুলি এবং রকেট লঞ্চারের বিস্ফোরণ ঘটায়।

তিনি বলেন, ‘সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, আগত সন্ত্রাসীরা আশরাফুল কামাল মিঠুর অনুসারী।’

তিনি বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে আমি এলাকায় মানবতার সেবা করে যাচ্ছি। এতে বর্তমান এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এবং উনার মেজ ছেলে ভীত এবং দিশেহারা হয়ে আমার ওপর বহুবার আমার ওপর হামলার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এবারের ঘটনায় ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এবং উনার মেজ ছেলের সার্বিক তত্ত্বাবধানে হামলার ঘটনা ঘটে।’

এদিকে গুলি এবং বোমার শব্দে শারীরিক প্রতিবন্ধীরা চারদিকে ছোটাছুটি করছিল বলে জানান এলিট। তিনি বলেন, ‘একজন এমপি কিভাবে প্রতিবন্ধীদের অনুষ্ঠানে হামলা করাতে পারেন? জাতির বিবেকের কাছে প্রশ্ন রেখে গেলাম। মিরসরাই থানা পুলিশ আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখায় তাদের ধন্যবাদ জানাই।’

আরএস/ডিজে

Yakub Group

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm