সরকারি উদ্যোগে আমিরাতে প্রবাসীদের ইফতার

0

পেশাগত কারণে এশিয়াসহ মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশের মানুষের রোজা কাটছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এদের মধ্যে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, ফিলিপাইন, ইরান ও মিশরের নাগরিকরা সংখ্যাগরিষ্ঠ। এসব অভিবাসীদের কথা মাথায় রেখে সরকারি উদ্যোগে প্রতিবছর মসজিদ, বাজার ও গুরুত্বপূর্ণস্থানে ইফতারে তাবু টাঙানো হয়। কোথাওবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি উদ্যোগেও চলে তাবু টানানোর কাজ।

অভিবাসী রোজাদারদের অধিকাংশই এসব তাবুতে ইফতার করতে আসেন। নিজেরা কিনে ইফতার করার সামর্থ্য থাকলেও সবার সাথে ইফতারের আগ্রহ থেকেই ছুটে আসেন তাবুতে।
বিরিয়ানি, খেঁজুর, শরবত আর পানিসহ নানান বাহারি ইফতারের আয়োজন থাকে এসব তাবুতে। এসব তাবুর কোনটিতে শতাধিক লোকের সমাগম হয় আবার কোনটিতে হাজারের বেশি লোক থাকে।
আরব আমিরাতে এবার সবচেয়ে বড় ইফতারের আয়োজন করা হয়েছে আবুধাবির শেখ জায়েদ বিন আল নাহিয়ান মসজিদে। এখানে প্রতিদিন প্রায় ৩০ হাজার মানুষ ইফতারে অংশগ্রহণ করেন।

হোটেল-রেস্তোরাঁগুলোতে রমজান মাসে ইফতারের বিশেষ আয়োজন করা হয়। এছাড়াও ফুটপাতেও ঐতিহ্যবাহী ইফতারসামগ্রীর পসরা সাজিয়ে বসেন বিক্রেতারা। দুবাই, আজমান, শারজা, আল-আইন, রাস আল খাইমা, ফুজাইরাহ, আবুধাবি ও মুসাফফার মত শহর ও শহরের বাইরের এলাকাগুলোতে ফুটপাতে ছোলা, মুড়ি, পিঁয়াজু, বেগুনি, জিলাপি, চপ, খেজুর আর ফলের পসরা দেখা যায়।

রমজান মাসে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক সংগঠনের ইফতার আয়োজন থাকে। অনেক বেশি সংগঠন থাকার কারণে পুরো মাসজুড়েই বিভিন্ন হোটেল-রেস্তোরাঁতে থাকে ইফতারের আয়োজন।

আরএইচ

Loading...
আরও পড়ুন