ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ খাগড়াছড়িতে

তিন যুবক আটক

0

খাগড়াছড়ি সদরের দূর্গম বড়পাড়া এলাকায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। খুন হওয়া কিশোরীর নাম ধনিতা ত্রিপুরা (১৮)। সে ওই গ্রামের জুমচাষী নলমোহন ত্রিপুরার মেয়ে। খবর পেয়ে মঙ্গলবার (১৪ মে) বিকাল ৪টার দিকে নিজ ঘর থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করেছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, জুম প্রস্তুত করার জন্য তার মা-বাবা সোমবার দীঘিনালায় যাওয়ায় ঘরে একা ছিলো কিশোরী ধনিতা ত্রিপুরা। এই সুযোগে প্রতিবেশী সন্দেহভাজন কয়েকজন যুবক তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে থাকতে পারে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও ধারণা করছেন কিশোরীকে সোমবার রাতে বাড়িতে একা পেয়ে পাশবিক নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করেছে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ কমল ত্রিপুরা, রুমেল ত্রিপুরা ও কিরণ ত্রিপুরা নামে একই গ্রামের তিন যুবককে আটক করেছে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।
ঘটনার খবর শুনে ছুটে যান পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশসুপার এমএম সালাউদ্দিনসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

খাগড়াছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহাদাত হোসেন টিটু পরিবারের সদস্যদের উদ্বৃতি দিয়ে জানান, ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে। তবে আটক কমল ত্রিপুরা বৈসাবি উৎসবের আগে থেকেই মেয়েটিকে জোরপূর্বক বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। ধনিতা মা-বাবা তাতে রাজি ছিলেন না। সেই ঘটনার প্রতিশোধ হিসেবেও তারা এই হত্যকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে।

এস.আর

Loading...
আরও পড়ুন