বৃষ্টি অপেক্ষায় রাখলো ভারত-নিউজিল্যান্ডকে

রিজার্ভ ডে’তে হবে ম্যাচের বাকি অংশ

0

বৃষ্টি অপেক্ষায় রাখলো বিশ্বকাপের ফাইনালের প্রথম দলটির নাম। ওল্ড ট্রাফোর্ডে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আগেই ছিলো মুষলধারে বৃষ্টির আশঙ্কা। ভয় ছিলো হয়তো ম্যাচ শুরুই করা যাবে না। তা হয়নি। যথাসময়ে ম্যাচ শুরু হয়েছিল ঠিকই কিন্তু বৃষ্টি হানা দিতে ভুল করেনি একটুও।

টস জিতে ব্যাট করতে নামা নিউজিল্যান্ড ইনিংসের ৪৭তম ওভারেই নেমেছে বৃষ্টি। যে কারণে বন্ধ হয়ে যায় প্রথম সেমিফাইনালের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি। তবে রিজার্ভ ডে থাকায় আয়োজকদের মনে চিন্তা ছিলো খানিক।

তবু শেষমূহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করা হয়েছিল মঙ্গলবারই (৯ জুলাই) ম্যাচটি শেষ করার। কিন্তু কোনোভাবেই তা সম্ভব হলো না। ফলে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬.২০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২০) খেলা স্থগিত করার ঘোষণা দেয়া হয়।

যার ফলে বুধবার (১০ জুলাই) আবার মাঠে গড়াবে ম্যাচটি। স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টা) শুরু হওয়া ম্যাচে নতুন করে খেলা হবে না। বরং মঙ্গলবার শেষ হওয়া অবস্থা থেকেই শুরু হবে। অর্থাৎ নিজেদের ইনিংসের বাকি থাকা ২৩ বল খেলতে নামবে নিউজিল্যান্ড। এরপর পুরো ৫০ ওভার ব্যাট করবে ভারত। তাড়া করবে নিউজিল্যান্ডের করা রান।

বৃষ্টি অপেক্ষায় রাখলো ভারত-নিউজিল্যান্ডকে 1
উইলিয়ামসন আর টেলর মিলে নিউজিল্যান্ডকে বাজে অবস্থা থেকে উদ্ধার করেন।

বৃষ্টি আসার আগপর্যন্ত খেলা হয়েছে ৪৬.১ ওভার। এ সময় নিউজিল্যান্ডের রান ছিল ৫ উইকেট হারিয়ে ২১১। ৮৫ বলে ৬৭ রানে অপরাজিত রস টেলর। তার সঙ্গী ৪ বলে ৩ রান করা টম ল্যাথাম। ৯৬ বল খেলে ৬৭ রান করে আউট হন কেন উইলিয়ামসন। এছাড়া হেনরি নিকোলস আউট হন ৫১ বলে ২৮ রান করে।

বিশ্বকাপের শুরুতে দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে চলছিল তাদের জয়যাত্রা। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের ছন্দপতন ঘটতে শুরু করে পাকিস্তানের কাছে হারের পর। গ্রুপ পর্বের শেষ তিনটি ম্যাচ টানা হেরে গেলেও রানরেটের ব্যবধানে চতুর্থ হয়ে সেমিফাইনালে নাম লেখায় তারা।

সেমিতে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মুখোমুখি তারা ভারতের। টস জিতে স্কোরবোর্ডে একটা চ্যালেঞ্জিং স্কোর তোলার লক্ষ্যে শুরুতেই ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। কিন্তু ভারতীয় বোলারদের সামনে যে গতিতে রান তুলছে তারা, তাকে কচ্ছপ গতির সঙ্গে তুলনা করলেও যেন কম করা হবে।

শুরুতেই নিউজ্যিলান্ডের ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরেন ভারতীয় বোলাররা। বিশেষ করে দুই ওপেনিং বোলার ভুবনেশ্বর কুমার আর জসপ্রিত বুমরাহ। কিউইরা রানের খাতাই খোলে প্রথম দুই ওভার মেডেন দিয়ে ইনিংসের ১৭তম বলে গিয়ে। তিন ওভার শেষে ১ রান।

বোমরার হাত ধরে প্রথম সাফল্যের দেখা পায় ভারত। যদিও বৃাষ্ট অপেক্ষায় রেখেছে তাদেরকে।

চতুর্থ ওভারে গিয়ে জসপ্রিত বুমরাহর বলে ব্যাটের কানায় লাগিয়ে থার্ড স্লিপে ক্যাচ দেন মার্টিন গাপটিল। বিরাট কোহলির হাতে ধরা পড়ে বিদায় নেন গাপটিল। পুরো বিশ্বকাপেই (এক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ ছাড়া) ফ্লপ ছিলেন এই কিউই ওপেনার।

ভারতীয় বোলাররা শুরু থেকেই যেভাবে চাপের মুখে রেখেছিল কিউইদের, সেটা ধরে রাখলো তারা প্রায় শেষ পর্যন্ত। ইতিমধ্যে ৪০ ওভার পার হয়েছে। কিন্তু উইকেট ধরে রাখতে পারলেও রান তোলার গতি নিউজিল্যান্ডের একেবারেই মন্থর। সব মিলিয়ে ৪.৫৭ হারে।

আজও বৃষ্টি হলে ভারতকে সে সমীকরণ মানতে হবে

বৃষ্টিতে নিউজিল্যান্ড ও ভারতের মধ্যকার সেমিফাইনাল শেষ হতে পারেনি। আজ রিজার্ভ ডেতে আবার মাঠে নামার সুযোগ পাবে দুই দল। নিউজিল্যান্ড গতকাল ৪৬.১ ওভার খেলায় আরও ২৩ বল খেলার সুযোগ পাবে। কিন্তু আজও বৃষ্টি নামলে, তখন কী হবে?

মেঘলা আকাশ দেখেও টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। পুরো ইনিংসে সাবধানী ব্যাট করে যদিও সে সিদ্ধান্তের পক্ষে খুব একটা যুক্তি দেখাতে পারেনি তাঁর দল। উইলিয়ামসনের ৬৭ রানের পর রস টেলরের অপরাজিত ৬৭ রানে ৫ উইকেটে ২১১ রান তুলেছে নিউজিল্যান্ড।

নিউজিল্যান্ড ইনিংস এখনো শেষ হয়নি। ৪৬.১ ওভারের পর বৃষ্টি নেমেছিল। সে বৃষ্টি গতকাল আর খেলা শুরু করতে দেয়নি। একটু পর পর বৃষ্টি থামার আশা জেগেছে কিন্তু সেটা খানিক পরেই ওই বৃষ্টির তোড়েই উড়ে গেছে। ফলে গতকাল দিনের বাকি অংশের খেলাও স্থগিত করা হয়েছে। সেমিফাইনাল ও ফাইনালের জন্য রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে বলে রক্ষা। আজ ইনিংসের বাকি ২৩ বল খেলার সুযোগ পাবে নিউজিল্যান্ড।

বৃষ্টি অপেক্ষায় রাখলো ভারত-নিউজিল্যান্ডকে 2
আজ রিজার্ভ ডে-তেও হয়তো আম্পায়ারকে বারবার ছাতা নিয়ে মাঠে যেতে হতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাস অবশ্য সে আশা দিচ্ছে না। সেখানে বলা হচ্ছে, আজও বৃষ্টি থাকবে এবং খেলার দৈর্ঘ্য কমে আসার সম্ভাবনা অনেক। সে ক্ষেত্রে নিউজিল্যান্ডের ব্যাট করতে নামার সম্ভাবনা কম। যদি তাই হয়, ভারতের জয়ের লক্ষ্যটা বেশ জটিল হয়ে উঠবে। নিউজিল্যান্ড ৫০ ওভার ব্যাট করার পর ভারত যদি পূর্ণ ৫০ ওভার ব্যাট করত তাহলে পরিষ্কার একটি লক্ষ্য জানা থাকত। কিন্তু এখন বৃষ্টির কারণে প্রতিটি পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে ভারতকে।

নিউজিল্যান্ড গতকাল মাত্র ৫ উইকেট হারানোয় ভারতের লক্ষ্য বেড়ে যাবে। আজ নিউজিল্যান্ড যদি ব্যাট করতে না পারে, এবং ভারত ৪৬ ওভার ওভার ব্যাট করার সুযোগ পায় তবে ভারতের লক্ষ্য হবে ২৩৭। ভারত যদি ৪০ ওভার ব্যাট করার সুযোগ পায়, তাহলে লক্ষ্য হবে ২২৩। আর যদি ৩৫ ওভারের ম্যাচ হলে ভারতের লক্ষ্য আরও কঠিন হবে। তখন করতে হবে ২০৯ রান।

ওভার যত কমবে রান ও বলের দূরত্ব তত বাড়বে। কিন্তু ১০ উইকেট হাতে নিয়ে ব্যাট করার সুযোগ পাওয়ায় ভারতের জন্য সে লক্ষ্য আরও সহজতর হবে। ৩০ ওভারে সেটা হবে ১৯২, ২৫ ওভারের রান হবে ১৭২। আর ২০ ওভারের ম্যাচে রূপ নিলে ভারতকে করতে হবে ১৪৮ রান।

আর ম্যাচ যদি পুরোপুরি ভেসে যায়, তখন? ভারতের লাভ। কারণ, গ্রুপ পর্বে সবার চেয়ে এগিয়ে থাকায় দুবারের চ্যাম্পিয়নরাই তখন ফাইনালে চলে যাবে।

Loading...
আরও পড়ুন