পারকি সৈকতে অসামাজিক কার্যকলাপ, পর্যটকরা বিব্রত

0

আনোয়ারা উপজেলার পারকি সমুদ্র সৈকতে বাড়ছে পর্যটকের ভিড়। বিশেষ করে ছুটির দিনে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসছে শত শত দর্শনার্থী। কিন্তু সেই সঙ্গে সৈকতে বাড়ছে অবৈধ কার্যকলাপও। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসা সাধারণ পর্যটকরা এতে বিব্রতকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হচ্ছেন।

পারকি সৈকত ঘুরে দেখা যায়, সৈকত এলাকায় গড়ে উঠেছে অর্ধশতাধিক খাবারের দোকান । এসব দোকানের ভেতরে আলাদাভাবে ছোট ছোট কক্ষ রাখা হয়েছে যেখানে মাদক সেবন, দেহব্যবসাসহ বিভিন্ন অবৈধ কার্যকলাপ চলে। এসব কর্মকাণ্ডে মদদ দিচ্ছে স্থানীয় প্রভাবশালী একটি চক্র। তবে স্থানীয় জনসাধারণ এসব কার্যকলাপে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

অসামাজিক কর্মকাণ্ড বন্ধের দাবিতে গত শুক্রবার সামাজিক সংগঠন ‘পারকি ঐক্যবদ্ধ পরিষদ’র উদ্যোগে সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী।

সংগঠনের এক কর্মী মোহাম্মদ শাহেদ জানান, পারকি সৈকতের পরিবেশ নষ্ট করছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। এসব ব্যবসায়ীর জন্য আমরা এলাকার মানুষ কেন বদনাম বয়ে বেড়াবো? অবৈধ যে কোনো কর্মকাণ্ড বন্ধের জন্য প্রশাসনের এগিয়ে আসা প্রয়োজন।

জেলা সৈকত ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য ও বারশত ইউপি চেয়ারম্যান এমএ কাইয়ূম শাহ্ বলেন, পারকি সৈকতে এসব অসামাজিক কর্মকাণ্ড দীর্ঘদিনের। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

জানতে চাইলে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর মাহমুদ বলেন, পারকি সৈকতে পর্যটকদের জন্য নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা। যাতে করে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে। যারা আপত্তিকর কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অসামাজিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে থানা পুলিশের একটি দল অভিযান চালাচ্ছে।

Loading...
আরও পড়ুন