বাল্যবিয়ে থেকে রেহাই পাওয়া সেই নাজমা এসএসসিতে পেলেন জিপিএ-৫

0

অষ্টম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছিল নাজমা আক্তারের। কিন্তু পড়ালেখার প্রতি নাজমার ছিল প্রবল আগ্রহ। পরে ওই ছাত্রী পারিবারিকভাবে ঠিক করা বিয়ে বন্ধের জন্য সহায়তা চেয়ে স্কুল পরিচালনা কমিটিকে লিখিতভাবে আবেদন করে। স্কুল পরিচালনা কমিটিও দ্রুত তাতে সাড়া দেয়।

কমিটির সভাপতি সিরাজুল করিম ও স্কুলের চার শিক্ষকসহ মেয়ের বাড়িতে উপস্থিত হন। ওই সময় ছেলের পরিবারসহ বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করার কথা চূড়ান্ত হচ্ছিল। স্কুল কমিটির সভাপতি ও শিক্ষকেরা উভয়পক্ষকে বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বোঝানোর পর তারা তাদের ভুল বুঝতে পেরে বিয়ের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন। এই সঙ্গে লিখিতভাবে এও অঙ্গীকার করেন, মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না।

সেই নাজমা আক্তার এখন ১৭ বছরের তরুণী। হোসনাবাদ লালানগর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পেয়েছেন জিপিএ-৫। রাঙ্গুনিয়ার লালানগর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের চতয্যাপাড়া গ্রামের জামাল উদ্দিনের মেয়ে নাজমা তার সাফল্যে ভীষণ খুশি।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সিরাজুল করিম বলেন, নাজমা প্রতিভাবান ও মেধাবী ছাত্রী। পড়ালেখার পাশাপাশি সে সহশিক্ষায়ওও পারদর্শী। সে যদি পড়ালেখা এগিয়ে নিতে চায় আমার পক্ষ থেকে সব রকমের সহযোগিতা থাকবে।

Loading...
আরও পড়ুন