একরুমেই ২৮ ব্রান্ডের দেশি-বিদেশি পণ্যের প্যাকেজিং

হাটহাজারীতে ভ্রাম্যমাণ অভিযান

0

মোড়ক দেখে বোঝার উপায় নেই ভেতরের পণ্যগুলো ভেজালে ভরা। কয়েক কছর ধরে এসব পণ্য হাটহাজারীসহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন দোকানে বাজারজাত করা হচ্ছিলো গ্রামের ছোট্ট একটি ঘর থেকে। হাটহাজারীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিনের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতে অবশেষে বেরিয়ে এলো থলের বিড়াল। অভিযানের পরপরই আন্তর্জাতিক ব্রান্ডের মোড়ক থেকে বেরিয়ে আসে নিম্নমানের ভেজাল চা পাতা ও ঘি’সহ ২৮টি ব্রান্ডের পণ্য।

মঙ্গলবার (১৪ মে) বিকাল ৩ টায় হাটহাজারী উপজেলার ধলই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বালুর টাল এলাকার একটি কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন। এ সময় প্রায় এক টন ভেজাল ও নিম্নমানের চা, মসলা জব্দ করা হয়। আট ফুট বাই ১৫ ফুট আয়তনের একটা ছোট্ট ঘরে দেশি-বিদেশি প্রায় ২৮ টি পণ্য প্যাকেটজাত করা হচ্ছে। সিলন চা, মির্জাপুর চা, রাধুনি সরিষা তেল, রাধুনি হালিম মিক্সড, রাধুনি পায়েস মিক্সডসহ দেশি-বিদেশি নানান ব্রান্ডের নকল পণ্য তৈরি এবং বিভিন্ন কেমিকেলে বানানো হচ্ছিলো ট্যাং আদলে ড্রিংকসহ পাঁচ রকমের ঘি।

হাটহাজারীতে উপজেলা প্রশাসনের নিয়মিত অভিযানের কারণে কারখানা বন্ধ করে পালিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযানে গেলে তালাবদ্ধ পাওয়া যায় কারখানাটি। এরপর তালা ভেঙ্গে চালানো হয় অভিযান। কারখানার কাউকে না পেয়ে প্রশাসন ভেজাল পণ্যগুলো জব্দপূর্বক ধ্বংস করা হয়।

এস.আর

Loading...
আরও পড়ুন