পুলিশ/ বদলি আতঙ্কে তিন ক্যাটাগরির ওসি, তালিকায় ২৫০ নাম

0

দায়িত্ব নিয়েই পুলিশে শুদ্ধি অভিযান চালানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন মহাপুলিশ পরিদর্শক ড. জাবেদ পাটোয়ারী। সেই ঘোষণার অংশ হিসেবে সম্প্রতি একসঙ্গে বেশ কয়েকটি জেলায় পুলিশ সুপার (এসপি) বদলির পর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অর্ধশতাধিক পদে রদবদল করেছে সদর দপ্তর। মূলত তিনটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করে থানার ওসিদের মধ্যে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ সদর দপ্তর।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আইজিপির নিজস্ব টিম দিয়ে তিন ধরনের ওসিদের তালিকা করেছে পুলিশ সদর দপ্তর। সেই তালিকায় সারা দেশের অন্তত ২৫০ জন ওসির নাম রয়েছে। এক. পুলিশের একটি ইউনিটে টানা ৬ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করা ওসিদের তালিকা করা হয়েছে। দুই. যেসব ওসি চারটি থানায় দায়িত্ব পালন করেছেন তাদের তালিকা করা হয়েছে। তিন. যারা ১২ বছরের অধিক সময় পর্যন্ত ওসির দায়িত্ব পালন করছেন তাদেরও রাখা হয়েছে সদর দপ্তরের ওই তালিকায়।

ইতোমধ্যে তিন নম্বর তালিকায় নাম থাকায় সিএমপির বন্দর থানার মহিউদ্দিন মাহমুদ, চান্দগাঁও থানার আবুল বাশার ও আকবর শাহ থানার জসিম উদ্দিনকে থানা থেকে সরিয়ে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় বদলি করা হয়েছে। আর চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ থানার ওসি ইফতেখার হাসানকেও বদলি করা হয়েছে একই কারণে। ২৫০ জন ওসির মধ্যে সিএমপি ও জেলায় যারা একই ইউনিটে ৬ থেকে ৮ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করেছেন যারা, তাদের পাশাপাশি অন্তত চারটি থানায় দায়িত্ব পালনকারী ওসিদেরও বদলি করা হতে পারে পরবর্তী ধাপে। এরকম অনেকেই চট্টগ্রাম নগর পুলিশ (সিএমপি) ও জেলায় দায়িত্ব পালন করছেন বর্তমানে।

দীর্ঘদিন এক জেলা বা ইউনিটে চাকরি করলে নানা অনিয়মে জড়িয়ে পড়ার ঘটনা দেখা যায় পুলিশ সদস্যদের মধ্যে। আর একজন ওসি ক্রমান্বয়ে চারটি থানায় দায়িত্ব পালন করলেও তাদের প্রভাবে যোগ্যতাসম্পন্ন নতুন পরিদর্শকরা থানায় পদায়নের সুযোগ পান না।

জাবেদ পাটোয়ারীর আগের আইজিপির দায়িত্বপালনকারী এ কে এম শহীদুল হক ওসি পদে পদায়নের জন্য আটটি সুনির্দিষ্ট বিষয় উল্লেখ করে একটি নীতিমালা জারি করেছিলেন। ওই নীতিমালা এখন থেকে যথাযথভাবে মানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। সেই হিসেবে অপেক্ষাকৃত তরুণ ও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির পুলিশ পরিদর্শকদের থানায় পদায়ন করা হচ্ছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের ওই নীতিমালায় বলা হয়েছিল, ওসি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিভাগীয়ভাবে একটি নীতিমালা অনুসরণ করার জন্য। ওই নীতিমালা অনুসারে ৫৪ বছরের বেশি বয়সের কেউ ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন না। কারণ, একজন ওসিকে মাঠপর্যায়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করতে হয়। তবে সিএমপির অন্তত তিনটি থানার ওসির বয়স এখন ৫৪ বছরের বেশি। এছাড়া সদর দপ্তরের নির্দেশনায় ১২ বছরের বেশি সময় ওসি পদে দায়িত্ব পালনে নিরুসাহিত করা হলেও ওই তিন ওসিই ১২ বছরের বেশি সময় ধরে ওসির দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

পুলিশ সদর দপ্তরের দায়িত্বশীল সূত্রে এসব বিষয় জানা গেলেও মন্তব্য করতে কেউ রাজি হননি। এমনকি আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারীর মোবাইলে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও অপর প্রান্ত থেকে সাড়া মিলেনি।

Loading...
আরও পড়ুন