আক্রান্ত
১৪৯৯১
সুস্থ
৩০৬১
মৃত্যু
২৪০

ত্রাণকাণ্ডে স্থায়ী বহিষ্কার হল চেয়ারম্যান জাহেদ, ইউএনওর বিরুদ্ধে অচিরেই ব্যবস্থা

0

কক্সবাজারের পেকুয়ায় ত্রাণের ১৫ মেট্রিক টন সরকারি চাল বিতরণ না করে আত্মসাতের অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় কক্সবাজারের পেকুয়ার ২ নম্বর টইটং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীকে নিজ পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। একই ঘটনায় পরোক্ষভাবে দায়ী সাব্যস্ত হওয়ায় পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে লিখিতভাবে জানিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

বুধবার (২৯ জুলাই) স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলামকে অপসারণের আদেশ দেওয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, জেলা প্রশাসক কক্সবাজারের সুপারিশক্রমে স্থানীয় সরকার বিভাগ গত ২৯ এপ্রিল ৪২৮ নম্বর স্মারকে চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। পাশাপাশি স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ধারা ৩৪(৪) (ঘ) অনুযায়ী তাকে কেন চূড়ান্ত অপসারণ করা হবে না তার ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। এতে সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারায় ও বিভাগীয় তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় একই আইনের ৩৪ (৫) ধারায় তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ/স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়। একইসঙ্গে পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী বলেন, সরকারি চাল আত্মসাতের ঘটনায় গত ৩০ এপ্রিল চট্টগ্রাম স্থানীয় সরকার বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) দীপক চক্রবর্তীকে আহবায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের আলোকে জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছে। প্রতিবেদনে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাঈকা সাহাদাতকে এ ঘটনায় পরোক্ষভাবে দায়ী করা হয়েছে। তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm