s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

৯ ধাপ পিছিয়ে গেল চট্টগ্রাম বন্দর, লয়েডস লিস্টের সেরা ১০০

0

লন্ডনভিত্তিক শিপিংবিষয়ক বিশ্বের সবচেয়ে পুরোনো সংবাদমাধ্যম লয়েড’স লিস্টে এক লাফে নয় ধাপ পিছিয়ে গেল চট্টগ্রাম বন্দর। একটানা সাত বছর বৈশ্বিক ক্রমতালিকায় এগিয়ে যাওয়ার পর এবারই ছন্দপতন ঘটল।

সোমবার (২৩ আগস্ট) রাতে তালিকাটি প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। ২০২০ সালে সারা বিশ্বের বন্দরগুলোর ব্যস্ততা অর্থাৎ কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যা হিসাব করে শীর্ষ ১০০টি বন্দরের তালিকা তৈরি করেছে লয়েডস লিস্ট। এর আগে চট্টগ্রাম বন্দরের অবস্থান ছিল ৫৮তে। এখন বাংলাদেশের গেটওয়ে খ্যাত চট্টগ্রাম বন্দরের অবস্থান নেমে গেছে ৬৭তম স্থানে।

লয়েডস লিস্টের তথ্য অনুযায়ী, চট্টগ্রাম বন্দরে কনটেইনার পরিবহন কমেছে ৮ শতাংশ। গত বছর বিশ্বে ৬৩ কোটি ২০ লাখ একক কনটেইনার পরিবহন হয়েছে। এই সংখ্যা ২০১৯–এর তুলনায় শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ কম।

লয়েডস লিস্টের তালিকায় বন্দরের সেবার মান বিবেচনা করা হয় না। বন্দরটি দিয়ে কনটেইনারে বৈদেশিক বাণিজ্য কমেছে বলেই তালিকায় পেছিয়ে এ বন্দর। ২০১৩ সালে কনটেইনার পরিবহনে বিশ্বে চট্টগ্রামের অবস্থান ৮৬তম থেকে টানা সাত বছর এগিয়ে গেছে এই বন্দর।

চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, করোনার কারণে কনটেইনারে পণ্য আমদানি-রপ্তানি কমেছে। দেশে কলকারখানাও বন্ধ ছিল। এটিই বৈশ্বিক তালিকায় অবস্থান নেমে যাওয়ার প্রধান কারণ হতে পারে।

বিজিএমইএ সহসভাপতি রকিবুল আলম চৌধুরী বলেন, গত বছরে পোশাক শিল্পের রপ্তানি বাণিজ্য কম হয়েছে। অনেক বায়ার অর্ডার বাতিল করেছিল। সেই প্রভাব পড়েছে বন্দরে।

অবশ্য লয়েডস লিস্টের তালিকায় বরাবরের মতো শীর্ষে রয়েছে চীনের সাংহাই। এর পরের অবস্থানে আছে সিঙ্গাপুর বন্দর। এ তালিকায় বিশ্বের শীর্ষ ১০ বন্দরের মধ্যে ৭টিই চীনের।

২০২০ সালে চট্টগ্রাম বন্দর বিশ্বের সেরা ১০০ বন্দরের মধ্যে ছিল ৫৮ তম। ২০১৯ সালে ৬৪ তম। ২০১৮ সালে ছিল ৭০ তম। এরও আগে ২০০৮ সালে এ তালিকায় দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দরটির অবস্থান ছিল ৯৮তম।

১৭৩৪ সালে প্রতিষ্ঠিত লয়েড’স লিস্ট শিপিংবিষয়ক বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো সংবাদমাধ্যম। ১৭৩৪ সালে লন্ডনের কফি শপের পত্রিকা হিসেবে যাত্রা শুরু হয়েছিল লয়েড’স লিস্টের। জাহাজ ও এ সংক্রান্ত ব্যবসায় বাণিজ্যের নানা খবর ও বিশ্লেষণ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আধিপত্য ধরে রাখা প্রতিষ্ঠানটি পত্রিকার প্রিন্ট সংস্করণ বন্ধ করে ইন্টারনেটনির্ভর সংস্করণ চালু করে।

এদিকে গত বছরের মত এবারও তালিকার শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে চীনের সাংহাই বন্দর। সেরার তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানটি সিঙ্গাপুর পোর্টের। তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ঠ, অষ্টম ও নবম অবস্থান অর্জন করেছে যথাক্রমে চীনের নিংবো-ঝওশান, শেনজেন, গোয়াংজু, হংকং পোর্ট, কুইংদাও, তিয়ানজিন পোর্ট।

অন্যদিকে সপ্তম অবস্থানে আছে দক্ষিণ কোরিয়ার বুসান বন্দর এবং ১০ নম্বরে নেদারল্যান্ডসের রটারডম বন্দর।

এএস/সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm