৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ সাতকানিয়ায়, ধর্ষক ইউসুফ র‍্যাবের হাতে গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রোববার (১১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে ফেনীর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের রামপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

গ্রেপ্তার হওয়া মো. ইউসুফ সাতকানিয়ার খাগরিয়া মুন্সি পাড়া এলাকায় মৃত সোনা মিয়ার ছেলে।

র‍্যাব জানায়, ৬ বছর বয়সী শিশু ভিকটিম মাদ্রাসায় প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী। সে প্রতিদিনের মতো ৬ ডিসেম্বর মাদ্রাসায় যায়। ওইদিন দুপুরে মাদ্রাসা থেকে ফিরে বাড়ির সামনে আসলে তখন তাদের প্রতিবেশী মো. ইউসুফ ভিকটিমকে মাদ্রাসার ব্যাগ বাসায় রেখে তার কাছে আসতে বলে।

ইউসুফের কথামতো শিশু ভিকটিম বাসায় ব্যাগ রেখে তার কাছে আসে। তখন ইউসুফ তাকে আচার, চকলেট এবং টাকাসহ বিভিন্ন জিনিস দিবে বলে তার বাড়ির পাশে শঙ্খ নদীর ধারে একটি ঝোপের ভিতর নিয়ে যায়। সে সময় শিশু ভিকটিম চিৎকার করলে ইউসুফ তার মুখ চেপে ধরে এবং বলে চিৎকার করলে একদম মেরে ফেলবো। পরে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে ইউসুফ।

পরবর্তীতে ইউসুফ শিশু ভিকটিমকে আচার, চকলেট এবং ১০ টাকার একটি নোট হাতে দিয়ে বাড়ি চলে যেতে বলে।

Yakub Group

পরবর্তীতে ভিকটিম বাড়ীতে আসলে তার শরীরে প্রচন্ড জ্বর ও অসুস্থতা দেখে তার মা তাকে হঠাৎ এমন অসুস্থ হওয়ার কথা জনতে চায়। তখন ভিকটিম তার মাকে ঘটনা বর্ণনা করে এবং তার রক্তক্ষরণ হচ্ছে বলে জানায়। তখন ভিকটিমের মা তাকে দ্রুত দোহাজারী সরকারী সাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার শরীরিক অবস্থা খারাপ দেখে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। বর্তমানে শিশুটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ইমারজেন্সি সার্ভিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন।

আরএম/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm