s alam cement
আক্রান্ত
১০১৬৩০
সুস্থ
৮৬৬০৯
মৃত্যু
১২৯৩

৩২ লাখেরও বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিল করোনা

0

মহামারি করোনাভাইরাসের ভয়াবহ তাণ্ডব বিশ্বব্যাপী ক্রমশ বেড়েই চলেছে। প্রতিদিনই ছাড়িয়ে যাচ্ছে শনাক্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড। দক্ষিণ এশিয়ার জনবহুল দেশ ভারতসহ বেশ কয়েকটি দেশ এখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণে বিপর্যস্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সাড়ে ১২ হাজারের বেশি মানুষ। এতে মহামারি শুরুর পর থেকে বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর মোট সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩২ লাখ।

এছাড়া ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭ লাখ ৮৯ হাজার। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৫ কোটি ২৮ লাখের ঘর।

রোববার (২ মে) সকাল ১০ টায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে মোট ১৫ কোটি ২৮ লাখ ১৭ হাজার ৪৩৬ জন। এরমধ্যে মারা গেছেন ৩২ লাখ ৬ হাজার ৬১৩ জন। আর এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৩ কোটি ৯১ হাজার ৭১ জন।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৩১ লাখ ৪৬ হাজার ৮ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯০ হাজার ৭০৪ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৫৭ লাখ ৭৭ হাজার ৯২৭ জন।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় এর পরেই রয়েছে ভারত। গত কয়েকদিন ধরে দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে শনাক্ত কিছুটা কমলেও বেড়েছে মৃত্যু। একদিনে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩ হাজার ৭০০ জনেরও বেশি মারা গেছেন। আর শনাক্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৯২ হাজারের বেশি। এ নিয়ে দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ কোটি ৯৫ লাখ ৪৯ হাজার ৬৫৬ জনের। মোট মৃত্যু বেড়ে দাাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১৫ হাজার ৫২৩। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৫৯ লাখ ৮১ হাজার ৭৭২ জন।

তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। ল্যাটিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১ কোটি ৪৭ লাখ ২৫ হাজার ৯৭৫ জন। এরমধ্যে মারা গেছেন ৪ লাখ ৬ হাজার ৫৬৫ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৩২ লাখ ৪২ হাজার ৬৬৫ জন।

চতুর্থ স্থানে থাকা ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৫৬ লাখ ৪২ হাজার ৩৫৯ জন রোগী। এরমধ্যে মারা গেছেন ১ লাখ ৪ হাজার ৭০৬ জন। সুস্থ হয়েছেন ৪৫ লাখ ৯০ হাজার ৩৭৬ জন।

শনাক্তের দিক দিয়ে এখন পঞ্চম স্থানে তুরস্ক। দেশটিতে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৪৮ লাখ ৪৯ হাজার ৪০৮ জন। এরমধ্যে মারা গেছেন ৪০ হাজার ৫০৪ জন। সুস্থ হয়েছেন ৪৪ লাখ ৫ হাজার ১৯৯ জন। এছাড়া তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে রাশিয়া, সপ্তম স্থানে যুক্তরাজ্য, অষ্টম স্থানে ইতালি, নবম স্থানে স্পেন এবং দশম স্থানে রয়েছে জার্মানি।

সংক্রমণ ও মৃত্যুর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। দেশে এখন পর্যন্ত ৭ লাখ ৬০ হাজার ৫৮৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এরমধ্যে মারা গেছেন ১১ হাজার ৫১০ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬ লাখ ৮৪ হাজার ৬৭১ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশটিতে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm