ফাস্টট্র্যাক/ ২ সেকেন্ডে টোল আদায় হবে কর্ণফুলী সেতুতে

0

শাহ আমানত সেতুর টোল আদায়ে যুক্ত হচ্ছে ফাস্টট্র্যাক প্রযুক্তি। এতে টোল আদায়ে সময় কমে আসবে মাত্র দুই সেকেন্ডে। সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের রোববার (২৭ অক্টোবর) সকালে এই পদ্ধতির উদ্বোধন করবেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ইজারাদার কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ কোম্পানি ইউডিসি-ভ্যান জেভি’র অপারেশন ডাইরেক্টর অপূর্ব সাহা চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ম্যানুয়ালি টোল আদায় করতে প্রচুর সময়ক্ষেপণ হতো। ফাস্টট্র্যাক পদ্ধতিতে টোল আদায়ে সময় প্রয়োজন হবে মাত্র দুই সেকেন্ড। পাল্টে যাবে শাহ আমানত সেতুর টোলপ্লাজার দৃশ্যপট।

তিনি আরো জানান, গাড়ির গ্লাসে থাকা রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি আইডেনটিফিকেশন বা আরএফআইডি ট্যাগের সঙ্গে টোল গেটের অ্যানটেনার সংকেতের মাধ্যমে টোল আদায় হবে। গাড়ি টোলপ্লাজা পার হওয়ার সাথে সাথে গাড়িওয়ালার রকেট একাউন্ট থেকে টোলের টাকা সেতু কর্তৃপক্ষের হিসাবে চলে আসবে। রকেট একাউন্টে টাকা না থাকলে জরিমানা গুণতে হবে। জরিমানা এড়াতে রকেট হিসেবে টোলের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা রাখতে হবে।

তবে এ পদ্ধতিতে শুধুমাত্র গাড়ির ডিজিট্যাল নম্বর প্লেটধারী এবং নির্দিষ্ট একটি ফরম পূরণ ও রকেট মোবাইল একাউন্ট খুলতে হবে বলেও জানা অপূর্ব সাহা।

প্রসঙ্গত, ইতোপূর্বে মেঘনা সেতুতে পরীক্ষামূলকভাবে এ পদ্ধতি চালু করা হয়েছিল। চট্টগ্রামে এই পদ্ধতি প্রথম এবং সারাদেশে দ্বিতীয়।

সরেজমিনে শাহ আমানত সেতুর টোল প্লাজায় গিয়ে দেখা যায়, শাহ আমানত সেতুর টোল প্লাজায় উইন্ডশিল্ড বেইজড ফাস্ট ট্র্যাক ইলেকট্রনিক টোল কালেকশন (ইটিসি) স্থাপন করা হয়েছে। নতুন এই পদ্ধতির প্রচারণার জন্য ইজারাদার কর্তৃপক্ষ বেশ কিছু ব্যানার ও ফেস্টুন টাঙিয়েছে। ফাস্ট ট্র্যাকের সুবিধায় গাড়ি চলাচলের জন্য টোল প্লাজার উভয় পাশে একটি করে লেন সংরক্ষিত করা হয়েছে।

টোল প্লাজার কর্মকর্তারা জানান, টোল আদায়ের পরপরই ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে গ্রাহককে জানিয়ে দেওয়া হবে টোল আদায় এবং ব্যাংক হিসাব থেকে টাকা কর্তনের হালনাগাদ তথ্য। এ কাজে সহযোগিতা দিচ্ছে ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড। আর ফরম পূরণে গাড়ি মালিক-চালকদের সহযোগিতা দিচ্ছে সেতুর ইজারাদার কর্তৃপক্ষ।

এফএম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন