২ রেল কর্মচারীর বিরুদ্ধে চাকরির নামে টাকা হাতানোর অভিযোগ

চট্টগ্রামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে চাকরি দেওয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল ঢাকার দুই কর্মচারীর বিরুদ্ধে। এজন্য অগ্রিম টাকাও দেওয়া হয় এক কর্মচারীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে।

অভিযুক্ত দুই কর্মচারী হলেন পূর্বাঞ্চল ঢাকা বিভাগীয় প্রকৌশলী (১) এইএন দপ্তরের অধীনে কর্মরত ওয়েম্যান ফিরোজ খাঁন এবং মো. মাহাবুব আলম।

ভুক্তভোগী সন্দ্বীপের মুছাপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. জাফর উল্লাহ রাশেদ বলেন, ‘আমার কাছ থেকে রেলে চাকরি দেওয়ার নামে ১ লাখ ৫০ টাকা হাতিয়ে নেয় ফিরোজ ও মাহাবুব।’

জাফর উল্লাহ বলেন, ‘ফিরোজ খাঁন আমার দূরসম্পর্কের ভগ্নিপতি হন। সেই সুবাদে তার মাধ্যমে মাহাবুবের সঙ্গে পরিচয় হয়। এরপর তারা ৩ লাখ টাকা চুক্তিতে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী পদে নিয়োগ দেওয়ার কথা বলেন। এজন্য জরুরি ভিত্তিতে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা পাঠাতে বলেন। আমিও চাকরির আশায় জমি বন্ধক রেখে তাদের টাকা পাঠায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘ফিরোজের কথা অনুসারে ২০২১ সালের ৫ জুলাই মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক হতে ঢাকার পল্টন ব্যাংক এশিয়া শাখায় মো. মাহাবুব আলমের অ্যাকাউন্টে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা পাঠাই আমি।’

অভিযোগের বিষয়ে জানতে ফিরোজ খাঁনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে প্রথমে সংযোগ কেটে দেন। পরে আবার কল করা হলে তিনি বলেন, ‘টাকা নিয়েছি কি-না তা আপনাকে কৈফিয়ত দেবো কেন?’ এরপর তিনি প্রতিবেদককে সাক্ষাত করে চা-নাস্তা খাওয়ার অনুরোধ জানান।

Yakub Group

এছাড়া আরেক অভিযুক্ত মো. মাহাবুব আলমের মুঠোফোনে কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে ঢাকা রেলওয়ে প্রকৌশলী-১ (এইএন) আবু বক্কর ছিদ্দিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি ভুক্তভোগীকে তার সঙ্গে দেখা করতে বলেন।

জেএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm