আক্রান্ত
১১৭৬৪
সুস্থ
১৪১৪
মৃত্যু
২১৬

২০৫৩ জন করোনাজয়ের দিনেই বাড়লো শনাক্ত ও মৃত্যু, বেড়েছে চট্টগ্রামেও

0
high flow nasal cannula – mobile

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়ানো প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে দেশে আবারও বাড়লো মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা। মাঝখানে প্রায় এক সপ্তাহব্যাপী শনাক্তের ও মৃতের সংখ্যা ছিল অপেক্ষাকৃত কম। গড়ে সাড়ে তিনহাজারের মতো আক্রান্তের পাশাপাশি প্রতিদিন মৃত্যুর সংখ্যা থাকত কমবেশি ত্রিশের ঘরে। কিন্তু গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও লাফ দিলো করোনা। এদিন মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিয়েছেন আরও ৪৫ জন। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হলো ১৭৮৩ জনের। একই সময় দেশে আরও ৪ হাজার ১৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। ফলে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৪১ হাজার ৮০১ জনে। একই সময়ে চট্টগ্রামেও আগেরদিনের শনাক্ত ৬৪ জনের জায়গায় নতুনভাবে শনাক্ত হয়েছে ৩৪৬ জন। চট্টগ্রামে এদিন সুস্থও হয়েছে অন্যান্যদিনের তুলনায় বেশি, ৩২ জন।

সোমবার (২৯ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

দেশের ৬৮টি আরটি-পিসিআর ল্যাবের মধ্যে ৬৫টির পরীক্ষা তথ্য তুলে ধরে তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস শনাক্তে ১৪ হাজার ৪১৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আগের কিছু নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১৭ হাজার ৮৩৭টি নমুনা। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৭ লাখ ৪৮ হাজার ৩৪টিতে। পরীক্ষায় দেশে নতুন করে আরো দুই হাজার ৫৩ জন করোনারোগী সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫৭ হাজার ৭৮০ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪০ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগেরই বাসিন্দা রয়েছেন ২২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১০ জন, খুলনায় পাঁচজন, সিলেট ও বরিশালে তিনজন করে এবং রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে মৃত্যুবরণ করেছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩০ জন এবং বাড়িতে মারা গেছেন ১৪ জন এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন একজন।

যারা মারা গেছেন তাদের বিশ্লেষণ তুলে ধরে নাসিমা সুলতানা বলেন, মৃত ৪৫ জনের মধ্যে ৩৬ পুরুষ এবং নয়জন নারী। তাদের বয়স বিশ্লেষণে জানানো হয়, মারা যাওয়াদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের দুজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের সাতজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ছয়জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের একজন এবং ৯১ থেকে ১০০ বছর বয়সসীমার একজন রয়েছেন।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম জেলায় ২৯ জুন সিভিল সার্জনের দেয়া তথ্যমতে, চট্টগ্রামে করোনা রোগীর সংখ্যা আট হাজার ৩৫ জনে। যাদের মধ্যে মারা গেছেন মোট ১৭১ জন ও সুস্থ হয়েছেন ৯৬৫ জন।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm