১৮ হলেই করোনার টিকা পাবেন যে কেউ, শুরু বুধবার থেকে

এখন থেকে করোনা টিকার জন্য নিবন্ধনের সুযোগ পাচ্ছেন ১৮ বছরের ওপরে দেশের সব নাগরিকই। গত আগস্টে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য নিবন্ধনের সুযোগ চালু করা হলেও সেটি উন্মুক্ত ছিল শুধু শিক্ষার্থীদের জন্য। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন থেকে ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সী যে কেউই সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মে নিবন্ধন করতে পারবেন।

বুধবার (২০ অক্টোবর) থেকেই সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মটি ১৮ বছরের ওপরে প্রাপ্তবয়স্ক সবার জন্য উন্মুক্ত হয়েছে। এখন সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মে নিবন্ধনের জন্য ঢুকলে শুরুতেই নাগরিক নিবন্ধন ক্যাটাগরিতে ১৮ বছর ও তার চেয়ে বেশি বয়সীরা নিবন্ধনের সুযোগ পাচ্ছেন।

এতদিন ২৫ বছরের বেশি বয়সী নাগরিক এবং সম্মুখসারিতে থাকা বিভিন্ন পেশাভিত্তিক শ্রেণি অথবা বিশেষ শ্রেণির নাগরিকরাই সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মের ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনে (www.surokkha.gov.bd) টিকার জন্য নিবন্ধন করার সুযোগ পাচ্ছিলেন।

গত ২৬ জানুয়ারি করোনাভাইরাসের টিকার জন্য নিবন্ধন শুরু হয়। শুরুতে শুধু ৪০ বছর বা এর বেশি বয়সীরা নিবন্ধনের সুযোগ পান। গত ৫ জুলাই আগের চেয়ে আরও পাঁচ বছর কমিয়ে টিকার নিবন্ধনের জন্য যোগ্যদের বয়স ৩৫ বছর করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এরপর গত ১৯ জুলাই আরও ৫ বছর কমিয়ে ৩০ বছর এবং ২৯ জুলাই টিকা নেওয়ার বয়সসীমা আরও ৫ বছর কমিয়ে ২৫ বছর করা হয়। সবশেষ গত ১৪ অক্টোবর ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী স্কুলের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলকভাবে টিকা দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৫ কোটি ৫০ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এর মধ্যে করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৩ কোটি ৯১ লাখ ৬৮ হাজারের বেশি মানুষ।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!