১২ কোটি টাকার অত্যাধুনিক ইনডোর কমপ্লেক্সের উদ্বোধন চট্টগ্রামে

নয়নাভিরাম খোলা ঝিনুকাকৃতির অত্যাধুনিক চট্টগ্রাম ইনডোর কমপ্লেক্সের বহুল কাঙ্ক্ষিত উদ্বোধন হলো অবশেষে। উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বিশ্বমানের ইনডোরটি বিসিবির কাছে হস্তান্তর করে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ম্যাচ শুরুর আগে শনিবার (১৪ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে এ ইনডোরের উদ্বোধন করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী ওয়াছি উদ্দিন। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিসিবি পরিচালক ও ভেন্যু চেয়ারম্যান আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং সিডিএর চেয়ারম্যান এম জহিরুল আলম দোভাষসহ বিসিবি কর্তারা।
১২ কোটি টাকার অত্যাধুনিক ইনডোর কমপ্লেক্সের উদ্বোধন চট্টগ্রামে 1
এই ইনডোরটি জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ঠিক পেছনেই। তিন নম্বর গেইট দিয়ে প্রবেশ করলে শুরুতেই বাঁ পাশে চোখে পড়বে এই ইনডোর।

ইনডোর তৈরিতে দারুণ মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন স্থাপত্যবিদ। ইট-কংক্রিটের দেয়ালের পরিবর্তে ইস্পাতের শক্ত-মোটা খাম আর পুরু হিট প্রুফ কাঁচে ঘেরা অবকাঠামো তৈরি করা হয়েছে। ছাদে ব্যবহার করা হয়েছে মোটা সিমেন্ট শিট। মূল ফটকের দিকটা উঁচুতে রেখে ছাদের সিমেন্ট শিটগুলোকে এমনভাবে বসানো হয়েছে তাতে ইনডোরটি পেয়েছে ঝিনুকের অবয়ব।

শুধু দেখতেই সুন্দর নয়, এ ইনডোরে রয়েছে আধুনিক সব সুযোগ সুবিধা। ১৪২ ফুট দৈর্ঘ্য আর ৫৮ ফুট প্রস্থের এই ইনডোরে আছে চারটি উইকেট। দুটি সবুজ টার্ফের এবং দুটি ম্যাটের। এ ইনডোর তৈরি করতে খরচ হয়েছে প্রায় ১২ কোটি টাকা। ২০২০ সালে কাজ শুরু করেছিল সিডিএ।

জহুর আহমেদে অবশ্য আগেও একটি ইনডোর স্টেডিয়াম ছিল। বছর তিন আগে চট্টগ্রাম আউটার লিংক রোডের ফ্লাইওভার তৈরি করতে গিয়ে ভাঙা পড়ে সেই ইনডোরটি। ভাটিয়ারী থেকে কর্ণফুলী টানেলের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার মাঝে জহুর আহমেদ ইনডোর স্টেডিয়ামের ভূমি অধিগ্রহণ করেছিল সিডিএ। যার বিনিময়ে তৈরি করা হয় স্টেডিয়াম চত্বরেই আন্তর্জাতিক মানের এই ইনডোর স্টেডিয়ামটি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm