১০ বছরের রেকর্ড ভাঙলো রেলের পাহাড়তলী ওয়ার্কশপ

1

চট্টগ্রামের পাহাড়তলী রেলওয়ে ওয়ার্কশপের ক্যারেজ শাখায় রেকর্ডসংখ্যক বগি মেরামত করে তা চলাচল উপযোগী করা হয়েছে। রেলওয়ের মেরামতকাজে পাহাড়তলী ওয়ার্কশপ কর্ম-ব্যবস্থাপক (নির্মাণ) এমনই চমক দেখালেন। গত ২ বছরে তার উদ্যোগে সবচেয়ে পরিমাণ রেলগাড়ি মেরামত ও চলাচল উপযোগী করেছেন— যার শতকরা হার ১৭১% । এটিকে গত ১০ বছরের তুলনায় রেকর্ডসংখ্যক মেরামত বলা চলে।

রেলওয়ে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, বিভিন্ন বাধ্যবাধকতা ও কর্মচারী ঘাটতি থাকার পরেও গত ১০ বছরের রেলওয়ের বগি মেরামত, যন্ত্রপাতি সংযোজন, রং করাসহ নানা জটিলতার নিরসন করেন তিনি। অতীতের তুলনায় বিগত ২ বছরে বগি মেরামত ও পুনরায় চলাচল উপযোগী করার রেকর্ডসংখ্যক কাজ ও যাত্রীসেবার মান ছিল চোখে পড়ার মতো। চলতি ২ বছর এ হার বেড়ে ১৭১ শতাংশ বৃদ্ধি পায়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বগি মেরামত কাজ চলছে পুরোদমে। পুরুষের পাশাপাশি মহিলারাও নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রেলওয়ের কর্ম-ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা সাইফুল ইসলাম চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘এ সফলতা আমার উর্ধ্বতনদের সার্বিক সহযোগিতা ও কাজে শ্রম দেওয়া ৮৯০ কর্মচারীর সম্মিলিত পরিশ্রমের ফল।’

রেলওয়ের কর্ম-ব্যবস্থাপনা বিভাগের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ প্রসঙ্গে সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কাজ করলে সমালোচনা হবে। কাজের প্রমাণ আপনারা পেয়েছেন আশা করি। বিভাগে চাহিদা রয়েছে ১৮০০ শ্রমিকের, কিন্তু আছে ৮৯০ জন শ্রমিক যাদের মধ্যে প্রায় ১৫০ জন নারী শ্রমিক।’

রেলওয়ের কর্ম-ব্যাবস্থাপক কাজী ওমর ফারুক বলেন, ‘প্রয়োজনের তুলনায় প্রায় অর্ধেক কর্মচারী দিয়ে ২ বছরের পরিকল্পিত কাজে সফলতা পেয়েছি।’

উল্লেখ্য, বুধবার (৪ ডিসেম্বর) রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এ উপলক্ষে রেলওয়ের সেবা সপ্তাহ শুরু হয়েছে। কমলাপুর, চট্টগ্রামসহ রেলের বড় স্টেশনে যাত্রীদের বিনামূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা দেবেন রেলওয়ে হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। যাত্রীদের ব্লাড প্রেসার ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হবে।

জেএস/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

1 মন্তব্য
  1. আজাদ বলেছেন

    এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখার দরকার

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন