হাসান আর শিরিন দেশের দ্রুততম মানব-মানবী

0

এক বছর পার না হতেই নিজের হারানো মুকুট পুনরুদ্ধার করেছেন দেশের দ্রুততম মানব হাসান মিয়া। একই সাথে দ্রুততম মানবীর খেতাব ধরে রেখেছেন শিরিন আক্তার। এরা দুজনই সামরিক বাহিনীর সদস্য। হাসান সেনাবাহিনীতে এবং শিরিন নৌবাহিনীতে কর্মরত।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ১৫ তম জাতীয় সামার অ্যাথলেটিকসে পুরুষদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টে হাসান মিয়া ১০.৬১ সেকেন্ড সময় নিয়ে ফিরিয়ে এনেছেন শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট। আর শিরিন আক্তার মেয়েদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টে ১২.২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে নবমবারের মতো হয়েছেন দেশসেরা।

হাসান মিয়া গত বছর সামারে মেজবাহ আহমেদকে হটিয়ে প্রথমবারের মতো দেশের দ্রুততম মানব হয়েছিলেন। তবে এ বছরের জানুয়ারিতে তিনি জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে খেতাব হারিয়েছিলেন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর এম ইসমাইলের কাছে। সেই ইসমাইলকে হারিয়েই তিনি বসলেন ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের রাজার আসনে।

গত বছর হাসান যখন দেশের দ্রুততম মানব হয়েছিলেন, তখন তিনি ছিলেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র। গত জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপেও তিনি বিকেএসপির জার্সিতে দৌড়িয়ে দ্বিতীয় হয়েছিলেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েই তিনি ফিরিয়ে আনলেন তার হারানো শ্রেষ্ঠত্ব।

দেশসেরা হয়ে দুইজনই আগামী সাউথ এশিয়ান গেমসে নিজেদের সেরা টাইমিং করার চেষ্টা করবেন বলে প্রত্যাশা করেছেন। ‘আমি যদি এসএ গেমসে নিজের সেরা টাইমিং করতে পারি তাহলে অবশ্যই একটা পদক পাবো। আমার লক্ষ্য এখন সেটাই’-বলেছেন শিরিন আক্তার।

Yakub Group

২০১৮ সালের বাংলাদেশ যুব গেমসে ১০০ মিটারে স্বর্ণজয়ী এবং দুইবারের দ্রুততম মানব হাসান মিয়া বলেছেন, ‘আমি ক্যারিয়ারসেরা টাইমিং করতে চাই এসএ গেমসে। আর সেরা টাইমিং হলেও যদি পদক না পাই, সেটাতো দুঃখজনক হবে।’

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm