হাসপাতালেই দেওয়া হল বিস্ফোরণে আহতদের মে মাসের বেতন

৪০ আহতসহ ৫১১ জন কর্মচারী পেলেন বেতন

0

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের বিএম ডিপোতে কর্মরত ৫১১ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বেতন দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৪০জন কর্মকর্তা-কর্মচারীও আছেন। গতকাল দুপুরের পর থেকে বিএম ডিপো কর্তৃপক্ষের লোকজন গিয়ে বেতনের সমুদয় অর্থ প্রদান করেন। নিহত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পরিবারের কাছেও বেতনের টাকা পাঠানো হচ্ছে বলে জানান ডিপো কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, অন্যান্য আহত রোগীদের পাশাপাশি চমেক হাসপাতালে ১৯জন, ঢাকায় ১৩জন ও বেসরকারি হাসপাতালে আটজন কর্মচারী চিকিৎসাধীন আছেন। বিএম ডিপোতে দুর্ঘটনার কারনে এসব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন দিতে পারেনি ডিপো কর্তৃপক্ষ।

চমেক হাসপাতালের ২০নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আরএসটি অপারেটর সালাহউদ্দিন বলেন, ঘটনার পর থেকে মালিকপক্ষ আমাদের পাশে আছে। চিকিৎসার সার্বিক খোঁজখবর রাখার পাশাপাশি খরচ দিয়েছে। এখন বেতনের টাকা হাসপাতালে এনে পৌঁছে দেয়ায় অনেক উপকার হলো। বিপদের সময় এ টাকা অনেক কাজে আসবে।

পার্কভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রিপোর্টিং সুপারভাইজার মনির হোসাইন বলেন, বিএম ডিপোর মালিকপক্ষ বেতনের টাকা পাঠিয়েছে। আমাদের বিপদের সময় তারা টাকা পাঠানোয় উপকার হলো। আমরা মালিকের প্রতি কৃতজ্ঞ।

বিএম ডিপোর পরিচালক মুজিবুর রহমান বলেন, আগুনে অফিসিয়াল কাগজপত্র নষ্ট হওয়ায় নির্ধারিত সময়ে বেতন দিতে পারি নাই। যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারী আহতাবস্থায় হাসপাতালে আছে তাদেরকে হাসপাতালে এবং যারা সুস্থ আছে তাদেরকে বিএম ডিপোতে গিয়ে বেতন দেয়া হয়েছে। মোট ৫১১ জন ব্যক্তিকে বেতন পরিশোধ করেছি।

Yakub Group

তিনি বলেন, এরপরেও কেউ বাদ পড়ে থাকলে তারা আমাদের সাথে যোগাযোগ করলে বেতন পৌঁছে দেয়া হবে। এই বিপদের সময় আমাদের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে যথাসময়ে বেতন দেয়া হয়েছে। আপদকালীন সময়ে বিএম ডিপোতে কর্মরতরা সবাই বেতন পাবেন বলেও জানান তিনি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm