আক্রান্ত
১৮৬৯৫
সুস্থ
১৫০৬২
মৃত্যু
২৯০

হালদার ডলফিন বাঁচাবে ১৪ জনের কমিটি, নির্দেশ হাইকোর্টের

0

হালদা নদীর জীববৈচিত্র্য, কার্পজাতীয় মা মাছ ও ডলফিন রক্ষায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে ১৪ জন সদস্যের একটি কমিটি করে দিয়েছে হাই কোর্ট। এ কমিটির নাম হবে ‘হালদা নদীর ডলফিন হত্যা রোধ, প্রাকৃতিক পরিবেশ, জীব বৈচিত্র এবং সকল প্রকার মা মাছ রক্ষা কমিটি’।

মঙ্গলবার (১৯ মে) পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের দেওয়া প্রতিবেদনের ভিত্তিতে বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১৪ সদস্যের এ কমিটিকে কার্যক্রম চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে। পরবর্তী শুনানির জন্য ২৮ মে ভার্চুয়াল এ আদালতের কার্যতালিকায় রাখা হয়েছে।

এদিকে, হাইকোর্টের নির্দেশে হালদা তীরের এলাকার সংসদ সদস্যরা কমিটির উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করবেন। তাদের উপদেশ অনুযায়ী এ কমিটিকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসককে সভাপতি এবং চট্টগ্রামের বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তাকে কমিটির সদস্য সচিব করা হয়েছে।

এছাড়া চট্টগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার, নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ড,পরিবেশ অধিদপ্তর, পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রতিনিধি; জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ছাড়াও হাটহাজারী, ফটিকছড়ি, বোয়ালখালী, রাউজান, রামগড় ও মানিকছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিন সায়েন্স অ্যান্ড ফিশারিজ অনুষদের প্রতিনিধি, জেলা প্রশাসকের মনোনীত দুইজন হালদা গবেষক, দুইজন এনজিও প্রতিনিধি এবং নদী তীরবর্তী উপজেলা চেয়ারম্যানদের কমিটিতে রাখতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে রিটকারী সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আব্দুল কাইয়ুম লিটন চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘পরিবেশ, জীববৈচিত্র ও চট্টগ্রামের হালদা নদীতে ডলফিন রক্ষায় কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালককে ইমেইলে আদালতকে জানাতে হাইকোর্ট নির্দেশ দেন। শুনানির পর পরিবেশ অধিদপ্তরের একটি সুপারিশের প্রেক্ষিতে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসককে সভাপতি করে হাইকোর্ট ১৪ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে দিয়েছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘হালদা নদীর ডলফিন ও মা মাছ রক্ষায় আশাকরি ১৪ সদস্যের এই কমিটি যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে এবং কার্যকর ভূমিকা রাখবে।’

দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে ২৩ নম্বর ডলফিনের মৃত্যুর পর মাত্র দেড় মাসের ব্যবধানে ‘খুন’ হয়েছে ২৪ নম্বর ডলফিন। হালদা নদীতে ডলফিন হত্যা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে ১১ মে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। অনলাইনে করা এ রিট আবেদনের ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে শুনানি শেষে মঙ্গলবার (১২ মে) হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ ভার্চুয়াল কোর্টে প্রথম আদেশ হিসেবে ডলফিন রক্ষায় কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালককে ইমেইলের মাধ্যমে আদালতকে জানাতে নির্দেশ দেন।’

এসআর/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm