হাত-পা হারানো ৩ অগ্নিদগ্ধ পাবেন কৃত্রিম অঙ্গ, দায়িত্ব নিলেন আ জ ম নাছির

0

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় হাত-পা হারানো তিনজনের যাবতীয় চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে তাদের দেহে কৃত্রিম অঙ্গ সংযোজন করার সম্পূর্ণ খরচ বহন করার কথা জানিয়েছেন তিনি।

গত ৪ জুন বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৭ বছরের কিশোর মো. হৃদয় পা হারায়। হৃদয় সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়া থেকে কৃত্রিম পা সংযোজন পর্যন্ত সব খরচ বহন করবেন আ জ ম নাছির উদ্দীন। শুধু হৃদয়ই নন; সেই বিস্ফোরণে হাত হারানো ২৪ বছর বয়সী মো. মারুফ হোসেন এবং ৩৮ বছর বয়সী মো. হযরত আলীরও কৃত্রিম হাত সংযোজন পর্যন্ত সম্পূর্ণ চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন সাবেক এ মেয়র।

বিএম কন্টেইনার ডিপোতে বিস্ফোরণের দিন আ জ ম নাছির উদ্দীন ব্যক্তিগত সফরে দুবাই ছিলেন। সেখান থেকে ফিরে সোমবার (১৩ জুন) সকালে বিস্ফোরণের ঘটনায় আহতদের চিকিৎসাসেবা দেওয়ার জন্য ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আর্থিক অনুদান দিতে যান তিনি। এ সময় হাত-পা হারানো তিনজনের ভবিষ্যতের কথা ভেবে তাদের সম্পূর্ণ চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করবেন বলে জানান আওয়ামী লীগের এ শীর্ষ নেতা।

এদিকে বিস্ফোরণে আহত হয়ে হাত-পা হারানো তিনজনই বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ২৬ নম্বর অর্থোপেডিক্স ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন।

আ জ ম নাছির উদ্দীন চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘দুঘর্টনায় হাত-পা হারানো তিন ব্যক্তি সুস্থ অবস্থায় বেঁচে থাকার কোনো উপায় নেই। তারা এখন যে অবস্থায় আছেন সে অবস্থায় সুস্থভাবে কিছু করতে না পারলে এক সময় তারা পরিবারের বোঝা হয়ে দাঁড়াবেন। এতে তারা হতাশায় ভুগবেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কর্তৃপক্ষের যা যা করার দরকার তা তারা সবই করছেন। তারপরও তাদের (হাত-পা হারানো তিনজন) ভবিষতের বিষয়গুলো চিন্তা করে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. শামীম আহসানের সঙ্গে কথা বলে তাদের হাত-পা পুনঃসংযোজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

Yakub Group

তিনি আরও বলেন, ‘এ তিনজনের পরেও যদি আর কারও কৃত্রিম হাত-পা লাগানোর প্রয়োজন পড়ে তাহলে তাদেরও চিকিৎসার যাবতীয় খরচ আমার ব্যক্তিগত ফান্ড থেকে দেওয়া হবে।’

এর আগে হাটহাজারীর বিধবা সেলিনা আক্তার ও তার চার মেয়ের আজীবনের পড়ালেখার দায়িত্বের পাশাপাশি ভরণপোষণের দায়িত্ব নিয়েছিলেন সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm