হাজার শিক্ষার্থীর উচ্ছ্বাসে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন

0

সমাবর্তন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি পেলেন চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১১২ শিক্ষার্থী। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

রোববার (২১ জুলাই) সকালে নগরীর নেভি কনভেনশন সেন্টারে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রায় আট হাজার শিক্ষার্থী এই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাজীবন শেষ করে বিভিন্ন পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানে আরও প্রায় আট হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করছেন। আন্ডার-গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামে ৮১৬ এবং গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামে ২৯৬ শিক্ষার্থী গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি লাভ করেন। সমাবর্তনে আন্ডার-গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামে ৮১৬ জন এবং গ্রেজুয়েট প্রোগ্রামে ২৯৬ জন মিলে মোট এক হাজার ১১২ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলরের মনোনীত প্রতিনিধি হিসেবে সভাপতিত্ব করেন ইউজিসির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হোসেন চৌধুরী নওফেল। কনভোকেশন স্পিকার হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন শিক্ষায় একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন। কনভোকেশন মার্শাল হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান মোহিত উল আলম।

বাণিজ্যিক মানসিকতায় পরিবর্তন আনতে হবে
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ‘বানিজ্যিক মনোভাব’ মানসিকতার পরিবর্তন করার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

রোববার (২১ জুলাই) সকালে নগরীর টাইগারপাস নেভি কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল বলেন, ‘উন্নত বিশ্বে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অ্যালামনাই থাকে, তারা গ্রাজুয়েটদের কর্মসংস্থান ও কর্মজীবনে সহায়ক ভূমিকা রাখে। তেমনিভাবে এখানেও প্রতিটি অনুষদের অ্যালামনাই থাকা দরকার। তাছাড়া জ্ঞান সৃষ্টি ও উচ্চ শিক্ষা গবেষণার কাজে প্রতিষ্ঠানকেই সবচেয়ে বেশি এগিয়ে আসতে হবে। সরকারের একটা নির্ধারিত প্রক্রিয়া আছে সেই প্রক্রিয়া অনুসারে হবে তবে এটাও সত্যি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় খাতগুলো যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে সেভাবে অনেক প্রতিষ্ঠান অবদান রাখছে না। এখন সময় এসব নিয়ে ভাবার সেদিকে নজর দেওয়ার। যারা শুধু বাণিজ্যিক চিন্তাভাবনায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করছে তাদের মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে।’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে শুধু বাণিজ্যের পথ থেকে সরে আসার তাগিদ দিয়ে তিনি বলেন, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যাতে শিক্ষা নিয়ে বাণিজ্য না করে সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পরপরই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন পাস করে। আইনটি পাস হওয়ার পর বেশিরভাগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মালিকানা বিলুপ্ত করা হয়। যদি ওই আইনটি তিনি পাস না করতেন তাহলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে হস্তক্ষেপ করা যেত না।’

সমাবর্তনে উপস্থিত গ্র্যাজুয়েটদের চিন্তাচেতনায় ভিন্নতা থাকলেও দেশের স্বার্থে সকল দলমত নির্বিশেষে আদর্শিক অবস্থানে থেকে দেশের এগিয়ে যাওয়ার সাথে সকলের অংশগ্রহণ আশা করেন উপমন্ত্রী নওফেল।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ গবেষণার সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে
জ্ঞান সৃষ্টি ও উচ্চ শিক্ষা গবেষণার জন্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সুযোগ করে দেওয়ার কথা বলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন।

প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তনে তিনি এসব কথা বলেন।

উপাচার্য ড. অনুপম সেন বলেন, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এমফিল ও পিএইচডি গবেষণা করার সুযোগ নেই। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে গবেষণা করার তাগিদ দেওয়া হয়। দেশের উন্নয়ন করার ক্ষেত্রে গবেষণা ছাড়া আর কোনো পথ নেই। বলা হয় গবেষণা করার জন্য কিন্তু পথ তো রুদ্ধ রয়েছে। তাই সক্ষমতা অনুযায়ী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমফিল ও পিএইচডি গবেষণা করার সুযোগ করার জোরালো দাবি জানাই।’

স্বাগত বক্তব্যে শিক্ষায় একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের গবেষণার কাজে নজর দেওয়ার কথা বলেন।

এসআর/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন